জমজমাট প্রতিবেদক

দ্বিতীয় বিয়ে করেও আমেরিকা প্রবাসী গায়ক এস আই টুটুল স্ত্রীকে ছেড়ে আলাদা বসবাস করছেন বলে খবর রটেছে। মাত্রই গেলো ৪ জুলাই প্রথম স্ত্রী অভিনেত্রী তানিয়াকে ডিভোর্স দিয়ে টুটুল বিয়ে করেছেন আমেরিকার নিউইয়র্কে বসবাসরত টেলিভিশন উপস্থাপিকা শারমিনা সিরাজ সোনিয়াকে। তবে বিয়ের খবরের মাস দেড়েক পরে জানা গেল সোনিয়া ও টুটুল একসঙ্গে থাকছেন না। সূত্র মতে, টুটুল বসবাস করছেন যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যে আর সোনিয়া যথারীতি নিউ ইয়র্কেই আছেন।

আমেরিকার কিছু সূত্র মতে, টুটুলের দ্বিতীয় স্ত্রী সোনিয়া কোনোভাবেই নিউ ইয়র্ক ছাড়বেন না। কেননা সেখানেই তার ক্যারিয়ার। অন্যদিকে টুটুলকে ব্যবসার কাজে ছাড়তে হয়েছে নিউ ইয়র্ক। যদিও শোনা যাচ্ছে – নববিবাহিত এই দুজনের সম্পর্কের মধ্যে চিড় ধরেছে। এর কারণ টাকা। জানা গেছে, সোনিয়ার কাছে ব্যবসার জন্য টাকা চেয়েছিলেন টুটুল। কিন্তু সোনিয়া টাকা দেননি স্বামী টুটুলকে।

জানা গেছে, শুধু তাই নয় সোনিয়া ও টুটুলের আইনগত বিয়ে নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে। নিউইয়র্কে বসবাসরত একাধিক সূত্র জানায়, টুটুল রেজিস্ট্রি ছাড়াই বাসায় হুজুর ডেকে এনে শারমিনা সিরাজ সোনিয়াকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর কিছুদিন একসঙ্গে থাকলেও হঠাৎ করেই সোনিয়াকে রেখে নিউইয়র্ক ছেড়ে ফ্লোরিডাতে চলে গেছেন টুটুল। সোনিয়াকে কিছু না বলেই গেলো ১ আগস্ট বাসা থেকে চলে যান তিনি। এখন টুটুল – সোনিয়ার মধ্যে যোগাযোগও নেই বলে জানা গেছে।

সোনিয়া গণমাধ্যমকর্মীদের বলেন, আমরা রেজিস্ট্রি করে বিয়ে করিনি। বাসায় হুজুর ডেকে এনে দুজন দুজনকে বিয়ে করেছি। আমেরিকাতে রেজিস্ট্রি করে বিয়ে করতে হলে অনেক নিয়ম-কানুন মানতে হয়। টুটুল আর আমি একসঙ্গে থাকছি না। টুটুল কিছু করতে চায়। পরিবারের জন্য টাকা পয়সা রোজগার করবে, তাই মনে হয় সে ফ্লোরিডাতে থাকছে।

প্রবাসী এই উপস্থাপিকা আরও বলেন, টুটুল আমাকে বাংলাদেশেও নিয়ে যেতে চেয়েছে। ফ্লোরিডাও থাকতে বলেছে। কিন্তু আমিতো নিউইয়র্কে ভালো চাকরি করছি। এখানে আমার প্রতিষ্ঠিত ক্যারিয়ার। আমার ছেলে রয়েছে। আমি চাইলেই তো কোথাও যেতে পারি না। টুটুলের গ্রিনকার্ড এখনো হয়নি। আবার ওর ছেলেকেও বাংলাদেশ থেকে এখানে নিয়ে আসার চেষ্টা করছে। রেজিস্ট্রি বিয়ের আগে আমরা একসঙ্গে থাকব না। কারণ, আমাদের পরিবার আছে। এখানে আরও অনেক ব্যাপার আছে।

এদিকে বাংলাদেশের একটি সূত্র মতে, তানিয়ার সঙ্গে নাকি আইনগতভাবে টুটুলের বিচ্ছেদই হয়নি। তাই সোনিয়ার সঙ্গে বিয়ের খবরে টুটুলকে আইনানুগ জটিলতায় পরতে হতে পারে। এই জন্যেই কৌশল হিসেবেই নাকি সোনিয়া – টুটুল আলাদা বসবাস করছেন।

Previous article‘লাইগার’ টিজার নিয়ে ব্যর্থ হলেন অনন্যা
Next articleশিল্পী আবদুল জব্বারের পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

Leave a Reply