জমজমাট ডেস্ক

রায়হান রাফি পরিচালিত ‘পরাণ’ সিনেমায় অপুর চরিত্রের নাম লিঙ্কন। এতে তাকে লোকাল মাস্তান হিসেবে দেখা গেছে। স্থানীয় এমপির ঘনিষ্ঠ হিসেবে রোমান, লিঙ্কন, তোজো পরিচিত। যথাক্রমে এই তিন চরিত্রে অভিনয় করেন- শরীফুল রাজ, অপু আহমেদ ও রাশেদ মামুন অপু।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সমাজকল্যাণে স্নাতকোত্তর শেষ করে অপু এখন পুরোদুস্তর অভিনেতা। অভিনয় প্যাশন হলেও এখন পেশা হিসেবে নিতে চান। রুপালি পর্দায় তাকে ‘পরাণ’ সিনেমার মাধ্যমে প্রথম দেখা গেছে। আর প্রথম সিনেমায় বাজিমাত করেছেন এই তরুণ।

তিনজনই নেশা করে ও ইয়াবার ব্যবসার সাথে জড়িত। যদিও তারা ছোটবেলার খুব ভালো বন্ধু। রোমান একটি মেয়ের প্রেমে পড়ে রাজনীতি ও নেশা ছেড়ে দিতে গিয়ে স্থানীয় এমপির রোশানলে পড়ে জেলে যেতে হয়। রোমানের প্রেমিকা অন্য ছেলে সিফাতকে বিয়ে করে ফেললে রোমান কোর্টে তোলার সময় পালিয়ে এসে সিফাতকে কুপিয়ে হত্যা করে যা ভাইরাল হয়।

তাকে গ্রেফতারের আদেশ জারী হয়। এই সুযোগে রাজনৈতিক ক্ষমতা রোমানের জায়গায় নেওয়ার অনুরোধ জানায় লিঙ্কন। অন্য দিকে তোজোকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে রোমানকে খুন করিয়ে সিফাত হত্যার প্রতিশোধ নেয় অনন্যা।

ঈদুল আজহায় মুক্তি পেয়েছে ‘পরাণ’। শুরুতে স্বল্পসংখ্যক প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেলেও দ্বিতীয় সপ্তাহে ৫৫টি প্রেক্ষাগৃহে চলছে সিনেমাটি।

এ ছাড়াও অনিরুদ্ধ রাসেলের ‘এনকাউন্টার’ সিনেমায় খল অভিনেতা হিসেবে অভিনয় করছেন অপু। এ প্রসঙ্গে অভিনেতা বলেন, ‘খল চরিত্রে অভিনয় করাটা অনেক কষ্টের। পরিশ্রম করে খল চরিত্রে অভিনয় করে যেতে চাই। শুরু থেকেই কষ্ট করে অভিনয় করে যাচ্ছি। আসলে অভিনয়টা করতে চাই।

এ ছাড়াও ‘বাওয়ালি’ ও ‘জামদানি’ নামে নতুন দুটি সিনেমায় নাম লেখিয়েছেন তিনি।এক যুগ আগে নবনাট নাট্যদলের সদস্য হয়ে অভিনয়ে যাত্রা শুরু করেন অপু আহমেদ। পরবর্তীতে টিভি নাটকে অভিনয় শুরু করেন।

Leave a Reply