জমজমাট ডেস্ক

বেশ কয়েক বছর ধরেই শোনা যাচ্ছিল – মনের মাঝে তুমি খ্যাত চিত্রনায়িকা পূর্ণিমার মনে নাকি তার স্বামী আহেমদ ফাহাদ জামালের জায়গা নেই। ফাহাদ – পূর্ণিমার সংসার ভাঙার গুঞ্জন বেশ কয়েকবার শোনা গেছে। মাঝে শোনা যায়, তারা মিউচ্যুয়াল সেপারেশনে আছেন। যাই হোক, সেই গুঞ্জন এবার পূর্ণিমা নিজেই সত্যি বলে প্রতিষ্ঠা করেছেন। জনপ্রিয় এই চিত্রনায়িকা আবারও বিয়ে করেছেন। তার নতুন বরের নাম আশফাকুর রহমান রবিন। তিনি আকিজ গ্রুপের মার্কেটিং বিভাগের উচ্চপদস্থ একজন কর্মকর্তা। পড়াশোনা করেছেন সিডনির একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, প্রায় দুই মাস আগে গেলো ২৭মে পূর্ণিমা – রবিনের বিয়ে হয়। দুই পরিবারের সম্মতিতে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয় বলে জানা গেছে।

নতুন করে সংসারী হওয়া তথা বিয়ে প্রসঙ্গে পূর্ণিমা বলেন, কাজের সূত্র ধরেই রবিনের সঙ্গে আমার পরিচয়। তিন বছরের পরিচয় থেকে বন্ধুত্ব, সেখান থেকে পরষ্পরের মন দেয়া-নেয়া, অতঃপর বিয়ে।

পূর্ণিমা জানান, বিয়ের পরেই পূর্ণিমাসহ তার পরিবারের অন্যরা অসুস্থ ছিলেন। কারও কারও কোভিড ছিল। সেই জন্যে তার বিয়ের খবর জানাতে দেরি হয়েছে। পূর্ণিমা জানান, বন্ধুত্ব, বিশ্বাস আর শ্রদ্ধাবোধ সবকিছু পেয়েছেন রবিনের মধ্যে। সেখান থেকে সম্পর্ক মজবুত হয়।

জানা যায়, পূর্ণিমা ২০০৭ সালে আহমেদ ফাহাদ জামাল নামে চট্টগ্রামের এক যুবককে বিয়ে করে দাম্পত্য জীবন শুরু করেন। তাদের সংসারে আরশিয়া উমাইজা নামে একটি ফুটফুটে মেয়েও রয়েছে। তবে আহমেদ ফাহাদ জামালের সঙ্গে তিন বছর আগে পূর্ণিমার বিবাহ বিচ্ছেদ হয় বলে জানা যায়। ইতিপূর্বে চিত্রনায়ক রিয়াজ এবং অঞ্জন নামের এক ব্যবসায়ী ও রাজনীতিকের সঙ্গে পূর্ণিমার বিয়ে হওয়ার গুঞ্জন ছিল। কিন্তু কখনোই পূর্ণিমা ওই সম্পর্কের কথা স্বীকার করেননি।

Previous articleপঞ্চগড় ও মাগুরা জেলার ৫২ উপজেলা ভূমিহীন-গৃহহীনমুক্ত: প্রধানমন্ত্রী
Next articleচলচ্চিত্র প্রযোজক সমিতির কার্যালয় বাঁশের ওপর দাঁড়িয়ে আছে

Leave a Reply