জমজমাট ডেস্ক

পদ্মা সেতু প্রকল্পে দুর্নীতিবিষয়ক মিথ্যা তথ্য দিয়ে ষড়যন্ত্রকারীদের খুঁজে বের করতে ৩০ দিনের মধ্যে কমিশন গঠনের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

মঙ্গলবার (২৮ জুন) হাইকোর্টের বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের বেঞ্চ এ-সংক্রান্ত রুলের শুনানি নিয়ে এ আদেশ দেন।

এছাড়া দুই মাসের মধ্যে এ বিষয়ে প্রতিবেদন জমা দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে পরবর্তী শুনানির জন্য আগামী ২৮ আগস্ট তারিখ ধার্য করেছেন আদালত।

এদিন আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক এবং দুদকের পক্ষে জ্যেষ্ঠ আইনজীবী খুরশিদ আলম খান শুনানি করেন।

এর আগে রোববার (২৬ জুন) বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের হাইকোর্ট বেঞ্চে এ সংক্রান্ত রুলের শুনানির জন্য মঙ্গলবার (২৮ জুন) দিন ধার্য করেন।

২০১৭ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি পদ্মা সেতু নির্মাণ চুক্তি এবং দুর্নীতির মিথ্যা গল্প সৃষ্টির নেপথ্যে প্রকৃত ষড়যন্ত্রকারীদের খুঁজে বের করতে তদন্ত কমিশন গঠন করতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না এবং দোষীদের কেন বিচারের মুখোমুখি করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট।

মন্ত্রিপরিষদ, স্বরাষ্ট্র, আইন ও যোগাযোগ সচিব এবং দুদকের চেয়ারম্যানকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়। হাইকোর্ট স্বপ্রণোদিত হয়ে এ রুল জারি করেন।

Previous articleশাকিব খান অবশেষে গ্রিন কার্ড পেলেন
Next articleঈদে বর্ণীল আয়োজনে বৈশাখী, প্রাধান্য পাচ্ছে নাটক, সিনেমা

Leave a Reply