রঞ্জু সরকার

আগের মতোই কথা বলছেন চলচ্চিত্রের মিয়াভাই- এমনটাই জানালেন খ্যাতিমান চলচ্চিত্র সম্পাদক আবু মুসা দেবু। বলেন আগের চেয়ে অনেকটাই ভালো আছেন মিয়াভাই, সেই আগের মতোই দরাজ কণ্ঠে সবাই কেমন আছে জানতে চাইলেন।

গতকাল শনিবার বিকালে মুঠোফোনে এ খবর জানান দেবু। বলেন গত বুধবার মিয়াভাইয়ের সঙ্গে কথা হয়েছে। তিন মিনিট কথা বলেছি। পুরো সময়টাজুড়ে চলচ্চিত্রের মানুষদের কথাই জানতে চাইলেন। যদিও আজিজুর রহমানের মৃত্যুর খবরটি তাকে জানানো হয়নি।

তিনি বলেন, অনেকদিন পর ফারুক ভাইয়ের সঙ্গে কথা বলতে পেরে একটু হালকা লাগছে। তার কণ্ঠস্বর শুনে বুঝতে পারছি তার অবস্থা ক্রমেই উন্নতি হচ্ছে।

ফারুকের স্ত্রীর বরাত দিয়ে দেবু জানান, নার্ভে কিছু সমস্যা আছে। ধীরে ধীরে সেগুলো চিকিৎসার মাধ্যমে সারানো হচ্ছে। সব ঠিকঠাক থাকলে দ্রুতই দেশে ফিরবেন ফারুক ভাই।

রক্তে সংক্রমণজনিত জটিলতা নিয়ে প্রায় এক বছর ধরে ১০ মাসের অধিক সময় ধরে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসা গ্রহণ করছেন দেশের অন্যতম এই অভিনেতা।

ফারুকের পুরো নাম আকবর হোসেন পাঠান দুলু। ফারুক নামে এইচ আকবর পরিচালিত ‘জলছবি’ চলচ্চিত্র দিয়ে অভিষেক হয় তার। ১৯৪৮ সালের ১৮ আগস্ট তিনি জন্মগ্রহণ করেন।

একসময়ে জনপ্রিয় এই চিত্রনায়ক ২০১৮ সালে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে ঢাকা-১৭ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চলচ্চিত্র ‘আবার তোরা মানুষ হ’, ‘সুজন সখী’, ‘লাঠিয়াল’, ‘জনতা এক্সপ্রেস’, ‘সাহেব’, ‘নয়নমনি’, ‘সুজন সখি’, ‘ঝিনুক মালা’, ‘গোলাপী এখন ট্রেনে’ তার উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র। এর বাইরে ‘মিয়াভাই’ চলচ্চিত্র করে অভূতপূর্ব সাড়া ফেলেন। এরপর থেকে চলচ্চিত্রাঙ্গনে তিনি ‘মিয়াভাই’ নামে পরিচিতি লাভ করেন।

চলচ্চিত্রে পাঁচ দশকের ক্যারিয়ারের অবদান রাখার জন্য সরকার তাকে আজীবন সম্মাননা প্রদান করে।

Previous articleপ্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় পদ্মা সেতুর মান বিষয়ে কোনও ধরনের কম্প্রোমাইজ করা হয়নি: আইনুন নিশাত
Next articleগায়িকা আয়েশা মৌসুমী ৫০১ টাকা কাবিনে বিয়ে করলেন

Leave a Reply