জমজমাট ডেস্ক

আগামী ১৯ জুন থেকে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হচ্ছে। শেষ হবে ৬ জুলাই। এবারের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় সারাদেশে ২০ লাখ ২১ হাজার ৮৬৮ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেবে। আর সারাদেশে মোট ৩ হাজার ৭৯০টি কেন্দ্রে পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে।

রবিবার (১২ জুন) সচিবালয়ে শিক্ষা মন্ত্রী ডা. দীপু মনির সভাপতিত্বে ২০২২ সালের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করা, প্রশ্ন ফাঁসের গুজবমুক্ত ও ইতিবাচক পরিবেশের লক্ষে গঠিত জাতীয় মনিটরিং ও আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত কমিটির সভা শেষে এ কথা জানান শিক্ষামন্ত্রী।

শিক্ষামন্ত্রী জানান, এ বছর নয়টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ১৫ লাখ ৯৯ হাজার ৭১১ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেবে। মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীন দাখিলে দুই লাখ ৬৮ হাজার ৪৯৫ জন এবং কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধিনে এসএসসি ও দাখিল ভোকেশনালে এক লাখ ৬৩ হাজার ৬৬২ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেবে। সব মিলিয়ে এবারের পরীক্ষায় দেশের ২৯ হাজার ৫৯১ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহন করবে।

শিক্ষা মন্ত্রী বলেন, ২০২১ সালের তুলনায় চলতি বছর মোটি পরীক্ষার্থীর সংখ্যা কমেছে দুই লাখ ২১ হাজার ৩৮৬ জন। তবে গত বছরের চাইতে মোট প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা বেড়েছে ৫৫৬টি আর মোট পরীক্ষা কেন্দ্র বেড়েছে ১১১টি।

এ বছর ঢাকা বোর্ডের আওতায় মোট পরীক্ষার্থী ৩ লাখ ৯৪ হাজার ৯৯৮ জন। রাজশাহীতে ১ লাখ ৯৬ হাজার ৬০০ জন, কুমিল্লায় ১ লাখ ৮৮ হাজার ৭১৪ জন, যশোরে ১ লাখ ৭০ হাজর ৩৭৭ জন, চট্টগ্রামে ১ লাখ ৪৯ ৭১০ জন, বরিশালে ৯৫ হাজার ৯৭৬ জন, সিলেটে ১ লাখ ১৬ হাজার ৪২৭ জন, দিনাজপুরে ১ লাখ ৭৩ হাজার ৯৬১ জন এবং ময়মনসিংহে ১ লাখ ১২ হাজার ৯৪৮ জন পরীক্ষার্থী রয়েছে।

অন্যদিকে মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের অধিনে ৯ হাজার ৯৩ টি প্রতিষ্ঠানের পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষায় অংশগ্রহন করবে। মোট ৭১৫টি কেন্দ্রে ২ লাখ ৬৮ হাজার ৪৯৫ জন অংশ নিবে। আর কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধিনে মোটি দুই হাজার ৮১৮ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী অংশগ্রহন করবে। দেশের ৮২৮ টি পরীক্ষা কেন্দ্রে মোট এক লাখ ৫৩ হাজার ৬৬২ জন পরীক্ষার্থী রয়েছে।

দেশের বাইরে আটটি কেন্দ্রে পরীক্ষা আয়োজন করা হবে। এরমধ্যে জেদ্দায় ৭০ জন, রিয়াদে ৪৮ জন, ত্রিপলীতে ৪ জন, দোহাতে ৬৮ জন, আবুধাবীতে ৫৯ জন, দুবাই ৩১ জন, বাহরাইনে ৫৩ জন এবং ওমানে ৩৪ জনসহ মোট ৩৬৭ জন পরীক্ষার্থী রয়েছে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, পরীক্ষা কেন্দ্রে ৩০ মিনিট আগে পরীক্ষার্থীদের প্রবেশ করতে হবে। যদি কেউ এরপরে প্রবেশ করে তবে গেটে রেজিস্ট্রার খাতায় দেরির কারন উল্লেখ করে ভেতরে প্রবেশ করতে হবে। দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের জন্য অতিরিক্ত মোট ২০ মিনিট বাড়তি সময় দেয়া হবে। ২০২২ সালের সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে এ পরীক্ষা নেয়া হবে। পরীক্ষার সময় ৩ ঘন্টার বদলে ২ ঘন্টা (এমসিকিউ ২০ মিনিট ও সিকিউ ১৪০ মিনিট) করা হয়েছে। পরীক্ষা শেষে ৬০ দিনের মধ্যে এ পরীক্ষা ফলাফল প্রকাশ করা হবে।

Previous articleততক্ষণ নীরব থাকি যতক্ষণ আত্মসম্মানে আঘাত না লাগে: ওমর সানী
Next articleপুরো বিষয়টিই ভিত্তিহীন ও অসত্য-ডিপজল

Leave a Reply