গুঞ্জনই অবশেষে সত্যি হলো! বিশ্ব বিখ্যাত ফুটবল ক্লাব বার্সেলোনা তারকা জেরার্ড পিকে ও পপ সম্রাজ্ঞী শাকিরার। জানা গেছে, দীর্ঘ ১২ বছর সম্পর্কের ইতি টেনেছেন দুই ভুবনের দুই বিশ্বখ্যাত এই দুই তারকা।

শনিবার (৩ জুন) এক আনুষ্ঠানিক বিবৃতির মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে শাকিরার নিজস্ব কমিউনিকেশন এজেন্সি। আর খবরটি নিশ্চিত করেছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি স্টার।

সংবাদমাধ্যমে দেওয়া বিবৃতিতে শাকিরা বলেন, দুঃখজনক হলেও সত্যি যে, আমরা সম্পর্কের ইতি টানলাম। আমাদের সন্তানদের কথা মাথায় রেখে বিষয়টি গোপন রাখার ব্যাপারে আশা করি আপনারা সচেতন থাকবেন। এটি সম্মানের সঙ্গে নেবেন। বিষয়টি বোঝার জন্য সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

জানা যায়, কিছুদিন ধরেই গুঞ্জন চলছিল – সম্ভবত জীবনের সবচেয়ে বড় ভুলটাই করে ফেলেছেন স্প্যানিশ তারকা ফুটবলার জেরার্ড পিকে। বার্সার এই তারকা শুধু একজন বিশ্বসুন্দরীর সঙ্গেই প্রতারণা করেননি, ধোঁকা দিয়েছেন বিশ্বসেরা একজন পপস্টারকেও। পিকে – শাকিরার সম্পর্ক নিয়ে সংবাদমাধ্যম মার্কা তাদের প্রতিবেদনের শুরুটা করেছে ঠিক এই লাইনগুলো দিয়েই।

২০১০ দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপে ‘ওয়াকা ওয়াকা’ গান দিয়ে বিশ্বজুড়ে আলোচনায় আসেন পপস্টার শাকিরা। বলতে গেলে তার ওই গানে মজেছিল গোটা বিশ্ব। শাকিরার সুর ছুঁয়ে গিয়েছিল স্প্যানিশ ফুটবলার জেরার্ড পিকের হৃদয়ও। এরপর দুজনের প্রেম আর সংসার। দীর্ঘ ১২ বছর একসঙ্গে থেকেছেন তারা।

জানা যায়, সম্প্রতি শাকিরার ‘তে ফেলিসিতো’ নামে একটি গান রিলিজ পেয়েছে। যার লিরিকের পরতে পরতে পিকের প্রতি ক্ষোভ ঝেড়েছেন কলম্বিয়ান বংশোদ্ভূত এই গায়িকা। গানের লিরিকে বলা আছে, ‘আমি তোমাকে গড়তে গিয়ে নিজেকে ভেঙেছি। আমাকে সতর্ক করা হয়েছিল, কিন্তু মনোযোগ দিইনি তখন। এরপর আমি জানতে পারলাম যে তোমারটা (ভালোবাসা) মিথ্যা ছিল। আমি তোমাকে ভালোভাবেই জানি, আমি জানি তুমি মিথ্যাবাদী। তোমাকে অভিনন্দন জানাচ্ছি, সন্দেহ নেই তুমি ভালো অভিনেতা, আশা করছি তোমার অভিনয় চলতেই থাকবে, তোমাকে সেখানেই মানায়।

অন্যদিকে, খবর রটেছে পিকের পরকীয়া প্রেমের কারণেই নাকি শাকিরা তার দাম্পত্য জীবনের ইতি টেনেছেন। গুঞ্জন উঠেছে, পিকে তার সতীর্থ খেলোয়াড় গ্যাভি’র মায়ের সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়েছেন। সেই জেরেই তিনি সংসার হারালেন।

Previous articleসেমন্তী মিউজিক এর ব্যানারে ফেরদৌস ও নিপুণের সুজন মাঝি
Next articleচলচ্চিত্র পরিচালক শহীদুল হক খান ক্যান্সার আক্রান্ত টাকার অভাবে চিকিৎসা থেমে গেছে

Leave a Reply