এগারো জ্যৈষ্ঠ (২৫ মে) বুধবার, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২৩তম জন্মবার্ষিকী। এবার জাতীয় কবির জন্মবার্ষিকী উদযাপনের প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে – ‘বিদ্রোহীর শতবর্ষ’। নজরুলের জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে সরকারি – বেসরকারি বিভিন্ন সংগঠন ও প্রতিষ্ঠান। মঞ্চ নাটকের দল জেনেসিস থিয়েটার জাতীয় কবিকে নিয়ে তার বিশেষ দিনগুলোতে কাজ করে যাচ্ছে বছরের পর বছর। এরই ধারাবাহিকতায় এবার বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমীর এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটার হলে জাতীয় কবির ১২৩তম জন্মবার্ষিকী ও বিদ্রোহী কবিতার শতবর্ষ উদযাপন উপলক্ষে “যৌবনে নজরুল” শীর্ষক আলোচনা এবং জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের আত্মজীবনী নিয়ে দুই বাংলার একমাত্র মঞ্চ নাটক ‘দামাল ছেলে নজরুলের’ ২৬ তম মঞ্চায়ন করবে। নাটকটি রচনা করেছেন মাহমুদ উল্লাহ এবং নির্দেশনা দিয়েছেন নূর হোসেন রানা, কোরিওগ্রাফি করেছেন ইমন খান, আবহ সঙ্গীত বিকাশ, কস্টিউম ডিজাইন ইকবাল খান ও ফারজানা রনি এবং সেট ডিজাইন করেছেন নির্দেশক নিজেই।

‘দামাল ছেলে নজরুল’ নাটকে নাম ভূমিকায় ইমন খান ছাড়াও অভিনয় করেছেন নূর হোসেন রানা, নিথর মাহবুব, ফারাহ ফেন্সী, আলেয়া বেগম আলো, মাহবুব জামান, কনা, রুশ মিলা, সানজিদা রোজ,মিরাজ হ্ম্যাপা, ইকবাল, মোক্তার, জারা অন্তরা, প্রকাশ সরকার সুমন, ফারজানা রনি, জলিল, সিয়াম, স্বপন, সিফাত, নুহাশ, আনজুম, জীবন, প্রদীপ কুমার ঘোষ, শেখ জয়নুল, আজহার আজু, মিলন, মাহমুদুল হাসান, আমির, ও শিশুশিল্পী ইয়াশফা,অংকন প্রমুখ ।

নাটকের গল্পে দেখা যাবে — নজরুল ছেলে বেলায় বাবাকে হারিয়ে নিদারুণ কষ্টের মাঝে ছোটবোন কুলসুম আর মাকে নিয়ে ক্ষুধা, তৃষ্ণা সহ্য করে বড় হন নজরুল। মসজিদের ইমামতি করে সংসার চালাতে কস্ট হয় বলে, লেটোদলে কাজ নেন নজরুল। সেখানেও ঠিকমতো পয়সা না পেয়ে রুটির দোকানে কাজ শুরু করেন। এভাবেই বাউন্ডলের মত জীবন চালনার জন্য মায়ের বকুনি আর বিবেকের তাড়নায় ইন্সপেক্টর কাজী রফিজুল্লাহ সাহেবের বাড়ি ময়মনসিংহে লজিং থেকে আবারও পড়াশুনা শুরু করেন নজরুল। সেখানে তিনি লজিং বাড়ির মেয়ে সিতারার সাথে পরিচিত হন। একসময় সেখান থেকে আবার চলে আসেন চুরুলিয়ায় মায়ের কাছে। ভর্তি হন রাণীগঞ্জে ‘শিয়ারশোল’ স্কুলে। এই স্কুলে থাকা অবস্থায় ইংরেজ তাড়ানোর কাজ শুরু করেন নজরুল। চলে যান যুদ্ধে, যুদ্ধের পাশাপাশি তাঁবুতে রাতের আঁধারে মাওলানা হাফিজের কাছে সাহিত্য চর্চা অব্যাহত রাখেন, অতঃপর সেখানে হাবিলদার নজরুল বাঙালি পল্টন ভেঙে দেওয়ার পর আবার কলকাতা এসে অন্যায়ের বিরুদ্ধে ‘কলম’ নামক ‘অস্ত্র’ হাতে নেন নজরুল।

সাপ্তাহিক ‘বিজলী’ পত্রিকায় ইংরেজদের বিরুদ্ধে ‘বিদ্রোহী’ কবিতা প্রকাশ পেলে নতুন করে সারাদেশে ঝড় তোলে। ওই সময় নজরুল ইচ্ছা পোষন করেন বিশ্ব কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সাথে দেখা করার। এসব নিয়ে নাটকটির কাহিনী রচনা হলেও, এর মাঝেই রয়েছে লেটোদলের গান, নাচ, আবৃত্তি, পুঁথি পাঠ, পালা, হাফিজের দিওয়ানসহ নজরুলের প্রতি সিতারা, রমাবৌদি, ঠাকুমা, অরুনাদি ও পিনাকিদের ভালবাসার গল্প।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (গ্রেড-১) মোঃ আজহারুল ইসলাম খান, বিশেষ অতিথি হয়ে উপস্থিত থাকবেন বিশিষ্ট নজরুল সঙ্গীত শিল্পী ফাতেমা তুজ জোহরা, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের সদস্য চিত্রনায়িকা রোজিনা, এটিএন বাংলার উপদেষ্টা তাশিক আহমেদ, বাংলাদেশ টেলিভিশনের অনুষ্ঠান অধ্যক্ষ মোঃ ইমাম হোসাইন এবং সভাপতিত্ব করবেন সংগঠনের সভাপতি নূর হোসেন রানা।

Previous articleসামান্থা-বিজয় ‘খুশি’ সিনেমার শুটিং করতে গিয়ে দুর্ঘটনায় আহত
Next articleকীর্তিমান ব্যক্তিত্ব বীর মুক্তিযোদ্ধা ইমামুল কবীর শান্তকে নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাতা সোয়েব সাদিক সজীব’র প্রামাণ্যচিত্র ‘দীপ্তপ্রান’

Leave a Reply