বলিউড অভিনেত্রী সানি লিওনকে নিয়ে বেশ কয়েক দিন ধরেই বাংলাদেশে চলচ্ছে নানা ধরণের চর্চা। সিনেমার কাজে বাংলাদেশে আসার কথা থাকলেও পরবর্তীতে তা বাতিল করা হয়। সম্প্রতি তথ্য মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে সিদ্ধান্তটি জানানো হয়। কিন্তু এরপরও সানি লিওন চলে এসেছেন ঢাকায়! আর তথ্যটি সানি নিজেই জানিয়েছেন।

শনিবার (১২ মার্চ) বিকালে নিজের ফেসবুক পেজে একটি ছবি পোস্ট দেন সানি লিওন। সেখানে দেখা যায়, তিনি ঢাকার বিমানবন্দরে। তার পেছনে লেখা রয়েছে ‘ওয়েলকাম টু বাংলাদেশ।

ছবিটির ক্যাপশনে সানি লিওন লেখেন, ‘এই সুন্দর দেশটিতে এসে খুব খুশি আমি।’

এদিকে ঢাকায় আসার পর সানি লিওন সোজা চলে গেছেন গানবাংলা টিভির কার্যালয়ে। সেখানে তাকে বরণ করে নিয়েছেন সংগীতশিল্পী ও গানবাংলার কর্ণধার কৌশিক হোসেন তাপস। সানির সঙ্গে তার স্বামী ড্যানিয়েল ওয়েভারও এসেছেন।

এদিকে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে কোন সিনেমার শুটিংয়ে নয় বরং বিয়ের দাওয়াতে এসেছেন এই অভিনেত্রী। সংগীতশিল্পী ও গানবাংলার কর্ণধার কৌশিক হোসেন তাপসের বড় মেয়ে নাজিসা আরমানের বিয়েতে নিমন্ত্রিত অতিথি হিসেবেই ঢাকায় এসেছেন তিনি।

এদিকে বাংলাদেশের নতুন প্রজন্মের জনপ্রিয় গায়িকা ফাতেমা তুয যাহরা ঐশী। সম্প্রতি তার গাওয়া একটি গান নিয়ে বেশ হইচই পড়ে গেছে। কারণ তাতে নেচেছেন অভিনেত্রী সানি লিওন। গানটির শিরোনাম ‘দুষ্টু পোলাপান’। এটির কথা লিখেছেন কৌশিক তাপস। সুরও তিনি করেছেন।

উল্লেখ্য, গত ২ মার্চ তথ্য মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে সানি লিওনের বাংলাদেশে আসার অনুমতি দেওয়া হয়। একটি সিনেমার শুটিংয়ের জন্য তিনি ও ভারতের ১০ জন অভিনয়শিল্পীকে ওই অনুমতি দেওয়া হয়। তবে গত ৯ মার্চ আরেকটি প্রজ্ঞাপনে সানির অনুমতি বাতিল করা হয়।

এর কারণ জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘ভারতীয় যে অভিনয়শিল্পী দলকে ভিসা দেওয়া হয়, তাদের একজন ছিলেন সানি লিওন। কিন্তু তার সানি লিওন নামটি গোপন করে মার্কিন নাগরিক পরিচয়ে আবেদন করা হয়েছিল। এভাবে পরিচয় গোপন করে অনুমতি নেওয়া আইন-বহির্ভূত। এটি যখন মন্ত্রণালয়ের নজরে আসে, তখন তার বাংলাদেশে আসার অনুমতি বাতিল করা হয়।’

Previous articleতথ্য মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞার পরও বাংলাদেশে সানি লিওন
Next articleগৌরি খান শাহরুখকে ডিভোর্স দিতে চেয়েছিলেন

Leave a Reply