আহসান হাবিব নাসিম ও ফারহানা মিলি, নাট্যাঙ্গনের প্রিয় দুই মুখ। পরপর দু’টি কাজ তারা একসঙ্গে করেছেন। একটি ধারাবাহিক নাটক ও অন্যটি আসছে বড়দিন উপলক্ষ্যে একটি খন্ড নাটক। বাংলাদেশ টেলিভিশনের প্রযোজনায় বাংলাদেশ টেলিভিশনে প্রচারের লক্ষ্যে সৈয়দ মহিদুর রহমানের রচনায় ও জুয়েল রানার পরিচালনায় আট পর্বের ধারাবাহিক ‘বিপরীত স্রোত’-এ একসঙ্গে অভিনয় করেছেন নাসিম ও মিলি। এছাড়াও এরইমধ্যে তারা দু’জন শেষ করেছেন ২৫ ডিসেম্বর বড়দিন উপলক্ষ্যে বিশেষ নাটক ‘দু:খী সান্তা’। নাটকটি রচনা করেছেন নাজমুস সাকিব ও পরিচালনা করেছেন অসীম গোমেজ। এই নাটকের পাশাপাশি ফারহানা মিলি শফিকুর রহমান শান্তনু’র রচনায় ও সোহেল রানার পরিচালনায় ‘অদল বদল’ ধারাবাহিক নাটকের শুটিং-এ ব্যস্ত রয়েছেন।

ফারহানা মিলি’র সঙ্গে পরপর দু’টি নাটকে কাজ করা এ প্রসঙ্গে অভিনেতা ও ‘অভিনয় শিল্পী সংঘ’র সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব নাসিম বলেন,‘ ফারহানা রমিলি নি:সন্দেহে ভালো অভিনেত্রী, ভালো অভিনয়শিল্পী, সর্বোপরি একজন ভালো মানুষও বটে। একজন সিনসিয়ার শিল্পী। অভিনয় শিল্পী হিসেবে তার চরিত্রটি বুঝে রিহার্সেল করেই অভিনয় করে মিলি। সহশিল্পী হিসেবে এক কথায় চমৎকার। যে কারণে তারসঙ্গে অভিনয় করতে আমি বেশ স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। যেহেতু এর আগেও কাজ করেছি এবং সাম্প্রতিক সময়েও কাজ করেছি। একটা বিষয়ই অনুভব করলাম যে, মিলির সঙ্গে কাজ করলে একটা কমফোর্ট জোনের সৃষ্টি হয়, তাতে কাজ করতেও ভালোলাগে। আমাদের দু’টি কাজ নিয়েই আমি আশাবাদী।

ফারহানা মিলি বলেন,‘পরপরই আমরা দু’জন একসঙ্গে দু’টি কাজ করেছি। দু’টি নাটকেরই গল্প ভালোলাগারই মতো। নাসিম ভাইয়ের সঙ্গে কাজ করার বিশেষ ভালোলাগাটা হচ্ছে ক্যামেরার সামনে অভিনয় করার আগে তিনি সহশিল্পীকে সঙ্গে নিয়েই অনেকবার রিহার্সেল করেন, যেটা সত্যিই ভীষণ জরুরী। এটা আমার জন্য বেশ আরাম হয়। অভিনয়টা ভালো হয়। তো, আমার কাছে মনে হয়েছে নাসিম ভাইয়ের সঙ্গে করা দু’টি কাজই আসলে ভালো হয়েছে। দর্শক প্রাণবন্ত অভিনয়টা পাবেন, যা আমার কাছে মনে হয় যে উপভোগ্য হয়ে উঠবে। বাকীটা আসলে দর্শকের ভালোলাগার ব্যাপার।’ এদিকে ফারহানা মিলি কিছুদিন আগে একটি অভিনয় ও নৃত্য প্রতিযোগিতার অনুষ্ঠানের বিচারক হিসেবে কাজ করেছেন। আহসান হাবিব নাসিম আপাতত ধারাবাহিকে অভিনয় করছেন না। অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি ব্যবসার নিয়েও বেশ ব্যস্ত আছেন।

Previous articleমামুন খান ও সুস্মিতা সিনহা’র ‘হাংকি পাংকি’
Next articleশিল্পীদের কাছে সবচেয়ে নির্ভরশীল তবলাশিল্পী তিনি

Leave a Reply