ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা মাহিয়া মাহি স্বামী রাকিবের সঙ্গে ওমরাহ পালন করতে গেছেন। স্বামী রাকিব সরকারকে নিয়েই ওমরাহ করবেন বলে বিয়ের পরই জানিয়েছেন এই নায়িকা। ২৪ নভেম্বর (বুধবার) মাহিয়া মাহি নিজেই ওমরাহ পালন করতে যাওয়ার বিষয়টি জানান। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে তার স্বামী রাকিব সরকারকে ট্যাগ করে এমন একটি পোস্ট করে এ খবর জানিয়েছিলেন তিনি।

ওমরাহ করতে গিয়ে এবার মরুভূমির বুকে স্বামীর সঙ্গে রোমান্টিক মুডে ধরা দিলেন ঢাকাই সিনেমার এই নায়িকা। মাহি বেশ কয়েকটি ছবি শেয়ার করেছেন ফেসবুকে। ক্যাপশনে লিখেন, শুকুর আলহামদুলিল্লাহ। সঙ্গে চারটি লাল রঙের চারটি লাভ ইমোজি।

মাহির শেয়ার করা ছবিতে দেখা যায়, স্বামীর সঙ্গে বেশ ফুরফুরে মেজাজে রয়েছেন তিনি। বিকালের মরুটাও যেন মাহি-রাকিবের সময়টাকে উপভোগের জন্য সোনালি প্রান্তরে রূপ নিয়েছিল। উষ্ণ মরুর বুকে স্বপ্ন জড়ানো ভালোবাসার কাব্য লিখলেন এই জুটি।

সৌদির উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়ার আগের পোস্টে মাহি লিখেছিলেন, আলহামদুলিল্লাহ, জীবনে প্রথমবার ওমরাহতে যাচ্ছি। এই অনুভূতি প্রকাশের ঊর্ধ্বে। রাকিব সরকার (স্বামী) তোমার জন্য অন্তর থেকে অনেক অনেক দোয়া। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন।

তৃতীয় বিয়ে করে ক্রমেই নিজেকে পরিবর্তন করছেন মাহি। বিয়ের পর অনেকটা বদলে গেছেন তিনি। শুটিংয়ের পাশাপাশি সামলে নিচ্ছেন নতুন সংসার। তার পোশাকেও এসেছে পরিবর্তন। আগে পোশাকে আবেদনময়ী রূপে দেখা দিলেও এখন পোশাকে ব্যাপক পরিবর্তন দেখা যাচ্ছে।

সম্প্রতি তৃতীয় বিয়ে করেন মাহি। তার স্বামীর নাম রাকিব সরকার। তিনি ব্যবসায়ী ও গাজীপুরের এক রাজনীতিক পরিবারের সন্তান। তিনি নিজেও রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। মাহির তৃতীয় বিয়ে হলেও রাকিবের দ্বিতীয় বিয়ে। রাকিবের আগের ঘরে এক ছেলে ও এক মেয়ে আছে।

২০১৬ সালের ২৫ মে জমকালো আয়োজনে সিলেটের ব্যবসায়ী পারভেজ মাহমুদ অপুকে বিয়ে করেছিলেন মাহিয়া মাহি। চলতি বছরের ২৪ মে তাদের পঞ্চম বিবাহবার্ষিকীর আগমুহূর্তে মাহি জানান, একসঙ্গে থাকছেন না আর তারা। অন্যদিকে, প্রথম স্বামী অপুও জানান তাদের মধ্যে বিচ্ছেদ ঘটেছে। তার পরই তৃতীয় বিয়ের খবর প্রকাশ্যে আনেন এই অভিনেত্রী।

তারও আগে ২০১৫ সালের ১৫ মে কাজী মোঃ সালাউদ্দিন ম্যারেজ রেজিস্টারের মাধ্যমে শাওন নামের একজনকে বিয়ে করেন মাহি। ২০১৬ সালে অপুকে বিয়ের পর শাওনের সাথে বিয়ের বিষয়টি আলোচনায় আসে। শাওনের সাথে মাহির ছবিও ফাঁস হয়। তখন মাহি সাইবার ক্রাইমে মামলা করেন। তবে সেই মামলার প্রতিবেদনে শাওনের সাথে মাহির বিয়ের প্রমাণ পাওয়া যায়।

বর্তমানে মাহির হাতে রয়েছে- ‘আনন্দ অশ্রু’, ‘নরসুন্দরী’, ‘মাফিয়া’, ‘অহংকারী বউ’, ‘গ্যাংস্টার’, ‘যাও পাখি বলো তারে’, ‘বুবুজান’, ‘লাইভ’ ও ‘আশীর্বাদ’ সিনেমাগুলো। এর মধ্যে অধিকাংশ সিনেমাই মুক্তির জন্য প্রস্তুত। নতুন বছরের শুরুর দিকে তার বেশ কয়েকটি সিনেমা মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে।

Previous article‘মিশন এক্সট্রিম’ নাবিলার শহর সৈয়দপুরে দর্শকের খরা
Next articleচলচ্চিত্র শিক্ষার্থী সংগঠনের আত্মপ্রকাশ

Leave a Reply