বাংলা চলচ্চিত্রের শীর্ষ নায়ক শাকিব খানের হাত ধরে চলচ্চিত্রে পা রাখেন সংবাদ পাঠিকা শবনম ইয়াসমিন বুবলী। তার নামের আগে যুক্ত হয় চিত্রনায়িকা। পাঁচ বছরের ক্যারিয়ারে শাকিব খানের বিপরীতে ১ ডজন সিনেমায় অভিনয় করেন তিনি। এর মধ্যে ১০টি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। যুগল নির্মাতা শাহীন সুমন পরিচালিত শাকিব-বুবলী জুটির ‘বিদ্রোহী’ ও তপু খান পরিচালিত ‘লিডার: আমিই বাংলাদেশ’ সিনেমা দুটি বর্তমানে মুক্তির অপেক্ষায় আছে। মুক্তিপ্রাপ্ত সবগুলো সিনেমা ঈদে এবং একটি ভালোবাসা দিবসে মুক্তি পায়। যার জন্য কেউ কেউ বুবলীকে ‘উৎসবের নায়িকা’ বলেন।

প্রথমবার শাকিবের ‘বাহুডোর’ ছেড়ে নায়ক বদল করেন বুবলী। সৈকত নাসির পরিচালিত ‘ক্যাসিনো’ সিনেমার মাধ্যমে জুটি গড়েন চিত্রনায়ক নিরবের বিপরীতে। যদিও এখন পর্যন্ত সিনেমাটি মুক্তি পায়নি। একই নায়কের বিপরীতে চলতি বছরের শুরুর দিকে ‘চোখ’ নামের সিনেমায় জুটি হয়ে অভিনয় করেন তিনি।

ত্রিভুজ প্রেমের ‘চোখ’ সিনেমাটি গত ১ অক্টোবর দেশের ৩৬টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়। তবে, সিনেমাটি থুবড়ে পরে। প্রথম দিন সনি স্টার সিনেপ্লেক্সে ‘চোখ’ দেখেন মাত্র ৩ জন দর্শক। অন্য প্রেক্ষাগৃহেও ছিল একইচিত্র। দ্বিতীয় সপ্তাহ না আসতেই অনেক প্রেক্ষাগৃহ থেকে সিনেমাটি নেমে যায়! অনেকে আবার সিনেমাটি দেখে এর নির্মাণশৈলী ও অভিনয় নিয়ে প্রশ্ন তুলেন। দর্শকদের হতাশ করেন শাকিবের নায়িকা বুবলী।

শাকিব খান ছাড়া অন্য কারও সঙ্গে অভিনয়ে সফল হবে না বুবলী- সমালোচকদের সেই মন্তব্যই যেন সত্যে পরিণত হলো। উৎসবের বাইরে এবং শাকিব খান ছাড়া এবারই প্রথম সিনেপর্দায় হাজির হলেন তিনি। এই চলচ্চিত্রে বুবলীর বিপরীতে অভিনয় করেন চিত্রনায়ক নিরব ও রোশান। মুক্তির আগে চলচ্চিত্রটি দেখতে দর্শকদের প্রতি আহ্বান জানান বুবলী।

‘শাকিব খান ছাড়া অচল বুবলী’- সমালোচকদের সেই ধারণা বদলে দিতে পুরো আত্মবিশ্বাসী ছিলেন নায়িকা। এর প্রমাণ দিতে চাইলেও তার নজির মিলছে না বাস্তবে। মুক্তির পর চলচ্চিত্রটি নিয়ে দর্শকদের কোনো আগ্রহ ছিল না। মহামারি করোনাভাইরাসের রেশ কাটিয়ে দীর্ঘদিন পর বুবলীর উপস্থিতি চলচ্চিত্রে আশার প্রভাব ফেলবে ভাবা হলেও সেই আশায় গুঁড়েবালি।

সিনেমাটি মুক্তি উপলক্ষে প্রচারণায় নীরব ছিলেন সংশ্লিষ্টরা। মুক্তির আগে প্রযোজনা সংস্থা অভিযোগ করেন- সিনেমার প্রচারণায় অভিনয়শিল্পীদের অসহযোগিতার। যদিও সেই সময় এমন অভিযোগ অস্বীকার করেন অভিনয়শিল্পীরা। তবে, বুবলীর কথায় স্পষ্ট ধারণা পাওয়া যায়- সিনেমাটির অফিসিয়াল পোস্টারে সন্তুষ্ট ছিলেন না তিনি। এমন দ্বিধা-দ্বন্ধে সিনেমাটি মুক্তি পেলেও আলো ছড়াতে ব্যর্থ হয়।

এদিকে, একটানা শাকিব খানের বিপরীতে জুটি হয়ে সিনেমা করলেও অভিনয়ে দ্যুতি ছড়াতে পারেননি বুবলী। একটানা কাজ করায় শাকিব-বুবলীকে নিয়ে ইন্ডাস্ট্রিতে শুরু হয় নানা গুঞ্জন। এক পর্যায়ে শোনা যায়- শাকিব-বুবলী জুটির ফাটল ধরেছে। একসঙ্গে আর সিনেমায় দেখা যাবে না তাদের। তার মধ্যেই সংবাদের শিরোনাম হয় শাকিবের ‘প্রিয়তমা’ সিনেমা থেকে বাদ পড়লেন বুবলী। গুঞ্জন আরও সত্যতা বহন করে।

তবে, এমন আলোচনা-সমালোচনার মধ্যে কাজী হায়াৎ পরিচালিত ‘বীর’ সিনেমায় তারা জুটি হয়ে সবার ধারণা পাল্টে দেন। কিন্তু সিনেমার প্রচারণায় নীরব ছিলেন বুবলী। বেশ তড়িগড়ি করে শুটিং শেষ করে নিজেকে ‘আড়াল’ করতে বিদেশে চলে যান তিনি। কিন্তু হঠাৎ করে কেনইবা তার লুকোচুরি? এমন নানা প্রশ্ন তখন গণমাধ্যমকর্মীদের মনে দেখা দিলেও ‘লাপাত্তা’ ছিলেন নায়িকা। ফিরেও কৌশলী উত্তর দিয়ে এখনও সেই রহস্য জিইয়ে রেখেছেন বুবলী।

প্রায় ১১ মাস পর আড়াল ভেঙ্গে চলতি বছরের ১ জানুয়ারি বেড়িয়ে আসেন তিনি। এসেই ফের যুক্ত হন শাকিব খানের বিপরীতে ‘লিডার: আমিই বাংলাদেশ’ সিনেমায়। সম্প্রতি সিনেমাটির কাজ সম্পন্ন হয়েছে। মুক্তির প্রহর গুনছে এই নায়িকার ‘তালাশ’ সিনেমাটি। নির্মাতা জানান, আসছে নভেম্বরে সিনেমাটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে।

Previous articleরবিবার চ্যানেল নাইনে সুমন-শাকিলার ‘ওরে ডাকাইত’
Next articleআরজে নিরবের মুক্তির দাবিতে টিএসসিতে মানববন্ধন

Leave a Reply