বাংলাদেশের টিভি নাটকের অন্যতম নন্দিত অভিনেত্রী তানিন জাহান প্রায় বছরেরও বেশি সময় পর তার মাকে নিয়ে কক্সবাজারে একান্তে কিছু সময় কাটানোর জন্য গিয়েছেন।

সেখানে তিনি তার মাকে নিয়ে ঘুরে বেরিয়েছেন। ঘুরে বেড়ানো শেষে সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আজ তাদের ঢাকায় ফেরার কথা রয়েছে। চলতি বছরের শুরুতে অর্থাৎ ফেব্রæয়ারি মাসে তারিন তার জীবনের সবচেয়ে প্রিয় মানুষ, তার জীবনের আদর্শ তার বাবাকে হারান। বাবাকে হারানোর পর থেকেই মানসিকভাবে তারিন যেমন অনেকটাই ভেঙ্গে পড়েন তার মা’ও অনেকটাই চুপচাপ হয়ে যান। যদিও বা জীবনের নিয়মে তারিনকে তার পেশাগত কাজে ফিরতে হয়। কিন্তু তারপরও বাবার জন্য মন খারাপ থাকে প্রায়শই তার। সবকিছু ভেবে তারিন তার মা’কে নিয়ে গেলো ২১ সেপ্টেম্বর দুপুরে কক্সবাজারে যান।

সেখানে মাকে নিয়ে তিনি মনেরমতো ঘুরে বেড়ান। দীর্ঘদিন পর কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে গিয়ে তারিনের মায়ের মনটাও যেন অনেক আনন্দে ভরে যায়। মায়ের মনে কিছুটা হলেও সুখ অনুভব সৃষ্টি করতে পারার মধ্যদিয়ে তারিনের নিজের মধ্যে ভীষণ ভালোলাগা কাজ করে।

কক্সবাজার থেকে গতকাল দুপুরে মুঠোফোনে তারিন জাহান বলেন,‘ সত্যি বলতে কী আব্বু অসুস্থ থাকার সময়কালীনটাতে আম্মু আর কোথাও যেতেন না। তাকে নিয়ে কোথাও ঘুরতে যেতে পারিনি। তারপর আবার শুরু হলো করোনা। দীর্ঘ একটা সময় আম্মুকে অনেকটাই ঘরবন্দী থাকতে হয়েছে। কোথাও নিয়ে যেতে চাইলেও আম্মু যেতে চাইতেন না। আব্বু চলে যাবার পর আম্মু অনেকটাই চুপচাপ হয়ে যান। তারপরও অনেকটাই জোর করে তাকে কক্সবাজার নিয়ে যাওয়া। কক্সবাজারে আসার পর আম্মুর ভীষণ ভালোলেগেছে। সত্যি বলতে কী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কারণে আমাদের দেশের দর্শনীয় স্থানগুলো এখন সবার দৃষ্টিতে চলে আসছে খুব সহজে। যে কারণে মানুষ এখন বিভিন্ন জায়গায় পরিবার, বন্ধুবান্ধব নিয়ে ঘুরতেও যান সেসব জায়গায়। আমি একটি বিশেষ কথা বলতে চাই-সেটা হলো, আমাদের পিতা মাতা’র কিন্তু আমাদের মানুষ করতে করতেই তাদের জীবনের অনেকটা সময় চলে যায়। তাদের যখন বয়স হয়ে যায়-তাদের ভীষণভাবে আমাদের যতœ নেয়া উচিত, তাদের সময় দেয়া উচিত। তাদের নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরতে যাওয়া উচিত। যদি সন্তান হিসেবে আমরা আমাদের দায়িত্ব পালন করি তাহলে আমাদের দেশে বৃদ্ধাশ্রমের প্রয়োজন হবেনা।’ এদিকে তারিন জানান এরইমধ্যে তিনি হৃদি হকের পরিচালনায় সরকারী অনুদানের সিনেমা ‘১৯৭১ সেইসব দিন’ সিনেমার শুটিং-এ অংশ নিয়েছেন। গেলো ঈদে তিনি তানিম রহমান অংশুর পরিচালনায় ‘সাহসিকা’ টিভি ফিচার ফিল্মে পুলিশ চরিত্রে অনবদ্য অভিনয় করে বেশ প্রশংসিত হয়েছেন।

Previous article১৫ বছর পর মিল্টন খন্দকারের লেখা ও সুরে তপন চৌধুরী
Next articleফ্যাশন হাউজ B2 -র গুলশান আউটলেট উদ্বোধন হচ্ছে আজ।

Leave a Reply