গেলো রবীন্দ্র প্রয়াণ দিবসে সঙ্গীতশিল্পী পুতুল তার নিজের ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ করেছেন রবীন্দ্র সঙ্গীত ‘পুরানো সেই দিনের কথা’। গানটি প্রকাশের পর থেকেই দারুণ সাড়া পাচ্ছেন বলে জানালেন পুতুল।

পুতুল বলেন,‘ এই গানটি গাইবার পরিকল্পনা ছিলো অকেদিনের। রেজার সাথে কাজ করার একেবাওে শুরুর দিকে গানটা করে রাখা। কিন্তু প্রকাশ করা হচ্ছিলোনা। এবার রবীন্দ্র প্রয়াণ দিবসে তাই গানটি প্রকাশ করলাম। গানটি প্রকাশ হয়েছে আমার ইউটিউব চ্যানেলে এবং স্টুডিও গানবাড়ি’র পেইজেও।

সৈয়দ রেজা আলী’র সঙ্গীতায়োজনে এই গানে অল্প সময়েই এতো সাড়া পাবো, ভাবিনি। সবার কাছে গানটি ভালোলাগার বিষয়টি আমাকে আপ্লুত করেছে। অনেক অনেক কৃতজ্ঞতা জানাই সবাইকে যারা ভালোবেসে গানটি শুনেছেন এবং শুনছেন। সত্যি বলতে কী আমরা যারা গান করি তারা একটু অনুপ্রেরণা পেলেই আমাগীতে আরো ভালো কাজ করতে আগ্রহী হয়ে উঠি। কারণ প্রত্যেকেই যার যার অবস্থান থেকে আমরা ভালো কাজটাই করার চেষ্টা করি।’ এদিকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে পুতুল একটি গান গেয়েছেন। শোক দিবসে সেই গানটি তার নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ পাবে।

গানের শিরোনাম ‘সেই কবিটার গল্প বলি’। গানটি লিখেছেন ও সুর করেছেন পুতুল নিজেই। সঙ্গীতায়োজন করেছেন সৈয়দ রেজা আলী। পুতুল বলেন,‘ বাংলাদেশের সৃষ্টি হয়েছে বঙ্গবন্ধুর জন্য। তাই এই মহান মানুষের প্রতি শ্রদ্ধা ভালোবাসা থেকেই এই গানটি করা। আমার কাছে শোক দিবসে তার প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলী জানানোর মতো আর কোন প্রয়াস নেই। শিল্পী হিসেবে এটাই আমার নিজস্ব ক্ষুদ্র প্রয়াস। আমি ভীষণ আশাবাদী গানটি নিয়ে।’

এদিকে বিষাক্ত দুপুর’র নামেও আরেকটি মৌলিক গান করেছেন পুতুল। গানের কথা, সুর ও সঙ্গীতায়োজন করেছেন সৈয়দ রেজা আলী। পুতুল জানান এটি একটি জ্যাজ ঘরানার গান। প্রথমবার এই ধরনের গান গাইলেন তিনি। একজন পুতুলের কাছে সবচেয়ে বড় অনুপ্রেরনার নাম দেশের বাইরের শিল্পী মৌসুমি ভৌমিক। তার জীবন দর্শন এবং তার সৃষ্টি পুতুলকে খুব অনুপ্রাণিত করে।

Previous articleজাতীয় শোক দিবসে ‘দশটি কফিন ও ইফরানের গল্প’
Next articleবঙ্গবন্ধু’র বায়োপিক-এ কাজ করে গর্বিত সায়েম সামাদ

Leave a Reply