অভিনয়শিল্পী রুনা খান, মারজুক রাসেল, মুকিত জাকারিয়া, এ্যালেন শুভ্র, চাষী আলম, জান্নাতুল সুমাইয়া হিমি ও সিয়াম নাসির সম্প্রতি এক সঙ্গে একটি ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করেছেন। নাটকের নাম ‘ডির্ভোস’। বিদ্যুৎ রায়ের রচনায় নাটকটি পরিচালনা করেছেন নাসির উদ্দিন মাসুদ। ধারাবাহিকটিতে আরও অভিনয় করেছেন সুমাইয়া আঞ্জুম মিথিলা, আইরিন আফরোজ,মুসাফির সাহিদ বাচ্চু, আব্দুল্লাহ রানা, শাম্মী সারমিন, সাবেরি আলম, হান্নান শেলী প্রমুখ। নির্মাতা সূত্রে জানা গেছে খুব শীঘ্রই নাটকটি একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে প্রচার হবে।

ধারাবাহিকের গল্পে দেখা যাবে, কর্পোরেট অফিসে চাকুরী করা শিবলু অনাকাঙ্খিত ভাবে তার চাকুরীটা হারায়। শুরু হয় অবন্তীর সাথে তার মন কষাকষি। কারণ অভাব জিনিসটার সাথে একেবারেই পরিচিত ছিলো না ধনী বাবা-মায়ের একমাত্র সন্তান অবন্তী। ফলশ্রুতিতে ভুল বোঝাবুঝির একটা পর্যায়ে অবন্তী শিবলুর উপর অভিমান করে বাবার বাসায় চলে যায় শিবলুকে ছেড়ে। শিবলুর এই খারাপ সময়ে বন্ধু আবির এসে তার বাসায় ওঠে শুধুমাত্র শিবলুকে মানষিকভাবে সাপোর্ট দেবার জন্য। সুলভ প্রেমী ও লোভী স্বাভাবের কারণে আবিরকে ডিভোর্স দিয়ে তার স্ত্রী চলে গেছে অনেক আগেই। এদিকে আবিরের বর্তমান প্রেমিকা টুম্পা একটা বিশেষ উদ্দেশ্য সাধনের জন্য নিজে থাকবে বলে আবিরকে তার একটা ফ্লাট ছেড়ে দিতে অনুরোধ করে। অপরদিকে ধানমন্ডিতে থাকা টুম্পার কোটি টাকার বাড়িটাকে নিজের করে পাবার লোভে আবির টুম্পাকে নিজের ফ্লাটের নাম করে মূলত শিবলুর ফ্লাটে তোলে। এরপর ঘটতে থাকে নানাা নাটকীয় ঘটনা। এভাবেই গল্পটি এগিয়ে যাবে।

পরিচালক নাসির উদ্দিন মাসুদ বলেন, বর্তমানের অন্য সব ধারাবাহিক নাটকের চেয়ে আমার নতুন ধারাবাহিক নাটকের গল্পটি একটু ব্যতিক্রম। বিনোদনের পাশাপাশি নাটকে বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করেছি। অভিনয়শিল্পীরা সবাই নিজের সর্বোচ্চ দিয়ে কাজটি ভালো করার চেষ্টা করেছেন। সব সময়ই চেষ্টা থাকে দর্শকের নতুন কিছু দেওয়ার। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। আশা করছি দর্শক ধারাবাহিকটি পছন্দ করবে।

Previous articleফিরলেন চুমকি
Next articleসোহাগের প্রতিবেদনের নতুন তারিখ

Leave a Reply