ঢাকাই চলচ্চিত্রের এ প্রজন্মের আলোচিত চিত্রনায়িকা শবনম ইয়াসমিন বুবলী। ২০১৬ সালে ‘বসগিরি’ ছবির মাধ্যমে চিত্রতারকা শাকিব খানের হাত ধরে চলচ্চিত্রে পা রাখেন তিনি। এ পর্যন্ত যতগুলো ছবি মুক্তি পেয়েছে সফল-অসফল প্রতিটি ছবিতেই তাঁর নায়ক ছিলেন শাকিব খান। জুটি হয়ে একের পর এক সিনেমা করায় দুজনকে ঘিরে প্রেমের গুঞ্জন ওঠে। সিনেপাড়ায় কান পাতলে শোনা যেত শাকিবের গন্ডিতে বন্ধী বুবলী! গুঞ্জন থাকা সত্ত্বেও শাকিবের সঙ্গে একের পর এক সিনেমায় অভিনয় করে গেছেন বুবলী। ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই বিভিন্ন কারণে তোপের মুখে পড়েছেন বুবলী। বিশেষ করে অপু বিশ্বাস ও শাকিব খানের সাংসারিক ঝামেলার কারণে। এ জুটির সর্বশেষ মুক্তি পাওয়া ছবি কাজী হায়াত পরিচালিত ‘বীর’। তবে ছিলেন না ছবিটির প্রাচরণায়। এরপর থেকে নিরুদ্দেশ বুবলী। গত দশ মাসেরও অধিক সময় ধরে সশীরের কোথাও দেখা মেলেনি বুবলীর। করোনাকাল শুরুর আগে থেকেই এই অভিনেত্রী লোকচক্ষুর আড়ালে চলে যান। এ নিয়ে শুরু হয় ফিসফাস, গুঞ্জন ও বিতর্ক। মা হয়েছেন বুবলী লোকমুখে এমনটাও শোনা যায়। তার সন্তানের বাবা শাকিব খান। ২৫ হাজার মার্কিন ডলার দিয়ে বুবলীকে আমেরিকা পাঠিয়ে দিয়েছেন খান সাহেব। ফেব্রুয়ারির শেষের দিকে মার্কিন মুলুকে চলে গিয়েছিলেন বুবলী।

তবে এমন খবরেও নীরব ছিলেন বুবলী। সে সময় অনেকেই বলতে থাকেন নীরব থাকা মানে সম্মতির লক্ষণ। কিছু দিন আগে বুবলীর একটি ঘনিষ্ট সূত্র থেকে জানা যায় ডিসেম্বরে দেশে ফিরছেন বুবলী। সদ্য বিদায় নেওয়া বছর ফিরেই চুপিসরে অংশ নেন ফটোশুটে। অবশেষে আড়াল ভেঙে নিজের অবস্থানের জানান দিলেন এ নায়িকা। বর্তমানে নিজ বাসা উত্তরাতেই আছেন তিনি। বুবলী জানান, ফিল্ম সম্পর্কিত একটি কোর্স করতে ফেব্রুয়ারির শেষের দিকে আমেরিকার নিউ ইয়র্ক যান। তিন মাসের কোর্স থাকলেও লকডাউন থাকায় আটকে পড়েন সেখানে। এজন্যই এতোদিন কোথাও তাকে দেখা যায়নি। তার সাথে কথা বলতে এ প্রতিবেদক একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করলে ফোন রিসিভ করেননি তিনি।

মা হওয়ার বিষয়টি নিয়ে বুবলী গণমাধ্যমকে বলেন, সময়ের সঙ্গে সবকিছুই পরিষ্কার হবে। আমরা যারা বিনোদন অঙ্গনে কাজ করি, কাজের জন্য সবাই আমাদের ভালোবাসেন। তাই আমিও চাই না, ব্যক্তিগত জীবন কাজের চেয়ে বেশি ফোকাসড হোক। শুরু থেকে এভাবেই চলার চেষ্টা করেছি। সময়টুকুর প্রতি সম্মান দিন। সবকিছু একটা নির্দিষ্ট সময় পর সবার কাছে পরিষ্কার হয়।

বুবলীর এমন কথায় বোঝার বাকি থাকে না যে আগামী দিনে হয়তো কিছু একটা পরিস্কার করলেও করতে পারেন তিনি। বুবলীর আড়ালে থাকা প্রসঙ্গে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট অনেকেই বলছেন বুবলী যদি সত্যিই ফিল্ম নিয়ে পড়ালেখা করতে বিদেশে যান তাহলে এমন গুঞ্জনে তিনি কেন নীরব ছিলেন? নিজের অবস্থান জানান দিতে সমস্যা কি? একটি প্রবাদ আছে যা রটে তা কিছুটা হলেও বটে। আড়ালে থাকার কারণ জানিয়েছেন, কিন্তু রহস্য জিইয়েই রেখেছেন এ নায়িকা। সময় বলে দিবে বুবলী অপু বিশ্বাসের পথে হেটেছেন নাকি আড়ালে থেকে নিজেকে তৈরি করেছেন।

তবে বুবলীর এমন কথায় খুশি হতে পারেননি চলচ্চিত্রপাড়ার অনেকে। তারা মনে করছেন, আড়ালে থাকার মূল কারণ এখনও জানাননি। বুবলীর নীরবতা অনেক প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে। ধারণা করা হয়েছিল, সেসব প্রশ্নের উত্তর জানাবেন এ নায়িকা। কিন্তু তিনি এখনও লুকোচুরি করছেন বলে মত অনেকের। তবে অপেক্ষায় তার ভক্তরা। প্রিয় নায়িকার মুখ থেকেই শুনতে চান আড়ালে থাকার আসল ঘটনা। সত্য স্বীকার দোষের কিছু না। বুবলীর সেই সত্য প্রকাশ্যে আসবে বলে বিশ্বাস করেন চলচ্চিত্রপাড়ার অনেকে। তবে তার জন্য অপেক্ষা করতে হবে আরও অনেক দিন। কারণ ধীরে ধীরে নিজেই সব জানাবেন বলে সাক্ষাৎকারে কথা দিয়েছেন বুবলী। তার ভাষায়, আমার মুখ থেকেই সবাই সব কিছু জানতে পারবেন। কথা দিচ্ছি সঠিক সময়ে সব জানবেন। আমি অবশ্যই জানাবো।

২০১৭ সালে শবনম বুবলীকে নায়িকা চূড়ান্ত করে বেশ আয়োজন করে ‘প্রিয়তমা’ সিনেমা নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছিল শাকিব খানের নিজস্ব প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান এসকে ফিল্মস। এমন ঘোষণার পর এসকে ফিল্মসের ব্যানারে ‘পাসওয়ার্ড’ ও ‘বীর’ সিনেমা মুক্তি পেলেও এই সিনেমার কাজ শুরু করতে পারেনি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটি। তবে করোনাকালে জানা যায়, ‘প্রিয়তমা’ ছবি থেকে বাদ পড়ছেন বুবলী। কি কারণে বুবলীকে বাদ দেওয়া হচ্ছে তা পরিস্কার নয়। সে সময়ও নীবর ছিলেন বুবলী।

শোনা যাচ্ছে, বর্তমানে শাকিব খানের সঙ্গে বুবলীর সম্পর্কটা ঠিক ভাল যাচ্ছে না। তাদের সম্পর্কে চির ধরেছে। যার কারনে শাকিবের আগামীর সিনেমা গুলোতেও বুবলীকে আর দেখা যাবে না। তাদের জুটিতে ফাঁটল নিয়ে তৈরি হচ্ছে ঘূণীভূত। শাকিব-বুবলীকে যদি আর জুটি হিসেবে নতুন চলচ্চিত্রে না দেখা যায় তবে তাদের শেষ ছবি হতে চলেছে শাহীন সুমন পরিচালিত এ জুটির ১১ তম ছবি ‘বিদ্রোহী’। আগামী রোজার ঈদে ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে।

Previous articleসড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন অভিনেত্রী আশা চৌধুরী
Next articleনতুন বছরে দিপার নতুন গান

Leave a Reply