অভিনেতা ও নির্মাতা হুমায়ুন কাবেরী। বর্তমানে নাটকেই ব্যস্ত সময় পার করছেন তিনি। হুমায়ুন অভিনীত প্রচার চলতি ধারাবাহিক সঞ্জিত সরকারের ‘চিটিং মাস্টার’, মিজানুর রহমানের ‘তিন পাগল’। প্রচারের অপেক্ষায় আছে আকাশ রঞ্জনের ‘ভাই ভাই ভায়রা ভাই’। এটি আরটিভিতে প্রচার হবে। টিভি নাটকের পাশাপাশি ইউটিউবের জন্য কিছু কাজ করছেন তিনি। অচিরেই শুরু করবেন ‘ভাগল পুরের পাগল পারা’ নামের একটি নাটকের কাজ। মিডিয়ায় আসার গল্প বলতে গিয়ে বলেন, ১৯৯০ সালে মিডিয়ায় আসি। শৈশব থেকেই থিয়েটারে যুক্ত। কমেডি অভিনয় দিয়ে শুরু। গান দিয়েও জনপ্রিয়তা পাই। ‘ফান দ্যা শো’ নামের একটি কমেডি শো করে ব্যাপক সাড়া পেয়েছি। বিটিভিতে অন্যরকম ম্যাগাজিন এ হুক্কা মিয়া চরিত্রে অনেক জনপ্রিয়তা আসে।

স্বপ্নের কথা উল্লেখ করে হুমায়ুন কাবেরী বলেন, সবাই মিডিয়াতে একটা স্বপ্ন নিয়ে আসে। আমিও অভিনয়ের স্বপ্ন নিয়ে এসেছি। অভিনয়ের পাশাপাশি জামিউর রহমান লিমন ভাই বললেন তুমি পরিচালনা শিখে নেও তখন তার সাথে সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ শুরু করি। সেই থেকে নির্মাণের সাথে জড়িত। এভাবে এক ডজন নাটকে সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করি। পরবর্তীতে নিজেই নির্মাণ করি। মার্কেটে আমার লেখা ৫০-৬০টির মতো গান আছে। আমাদের দেশে হিন্দি গানের বেশি কপি হতো সেগুলো বেশি লিখতাম।

এরইমধ্যে বেশ কিছু নাটক পরিচালনা করেছি। অভিনয় করেছি একশ’র বেশি নাটকে। অভিনয়ের পাশাপাশি নির্মাণ চালিয়ে যেতে চাই। স্বপ্ন দেখি চলচ্চিত্রে কাজ করার। তবে যে কাজের প্রস্তাব পাই তা মন মতো হচ্ছে না। আক্ষেপ নিয়ে বলেন, আমাদের দেশে কমেডিয়ানদের নির্ভর করে গল্প লেখা হয় না। অথচ অন্য দেশে কমেডিয়ানদের নিয়েই সিনেমা নির্মাণ করা হয়। দেশে কয়েক বছর ধরে দেখে আসছি নায়ক-নায়িকা নির্ভর ছবি নির্মাণ হচ্ছে। আমি হিরো বা চামচা হতে আসিনি। কমেডি চরিত্রে কাজ করতে চাই। আগামী দিনের পরিকল্পনা জানিয়ে বলেন, সামনে পরিচালনায় নিজেকে বেশি ব্যস্ত রাখতে চাই। এরইমধ্যে একটি চলচ্চিত্রের গল্প লেখা শুরু করেছি। ইউটিউবের মানহীন কনটেন্ট এর কথা উল্লেখ করে হুমায়ুন কাবেরী বলেন, আমি সব সময় চিন্তা করি কাজে মান বজায় রাখতে। কোন ধরনের যেন অশ্লীলতা না থাকে। অথচ বর্তমানের ইউটিউবে অধিকাংশ ভিডিও সুরসুরি দেওয়া। ভিউয়ের দৌড়ে না ছুটে মান সম্মত কাজ করতে হবে।

Leave a Reply