মডেল শান্তা পাল। র‌্যাম্পের পাশাপাশি টিভিসিতেও অংশ নিয়েছেন। প্রতিনিধিত্ব করেছেন আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও। এদিকে গত রোববার দুপুর থেকে রাতভর রমনা মডেল থানার ভেতরে বাইরে শান্তার মাতলামিতে হতবাক হয়েছেন মানুষ। রোববার রাত সাড়ে ১১টায় থানায় গিয়ে নানা কিছিমের মাতলামি করেন। একবার থানার সামনের রাস্তায় মাটিতে লুটিয়ে পড়ে জ্ঞান হারান, আবার কখনো রাস্তায় পড়ে থাকাবস্থায় আসক্তদের মতো শরীরে খিঁচুনি তোলেন। কখনো চোখ খুলে মোবাইল দেখেন। আবার কখনো পুলিশের গাড়ি থেকে লাফ দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালান। আবার উঠে গিয়ে পাশের দোকানে ব্লেড চেয়ে না পেয়ে দোকানির ওপর ক্ষিপ্ত হন। সেখান থেকে আবার পুলিশের ওপর ক্ষিপ্ত হন। তাকে ঘিরে থাকা নারী পুলিশের দিকে তেড়ে যান। আবার পুলিশকে অশ্রাব্য ভাষায় গালাগাল করতে থাকেন।

তার এমন আচরণে অসহায় ছিল পুলিশ। কয়েকজন নারী পুলিশ দিয়ে তাকে নিয়ন্ত্রণে প্রাণপণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিল। আর কৌতূহলী জনতা রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে অবাক হয়ে এমন দৃশ্য দেখছিল। ঘটনার বিষয়ে রমনা জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার শেখ মো: শামীম গণমাধ্যমকে জানান, শান্তা দুপুরের দিকে ফয়সাল ফরহাদ নামে এক নাট্য নির্মাতার বিরুদ্ধে ‘সেক্সুয়াল অ্যাসাল্টের’ অভিযোগ করেন। তার অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ফরহাদকে আটকের পর ওই তরুণী থানায় এসে বলেন, আটক ফরহাদের কাছ থেকে তাকে টাকা আদায় করে দিয়ে আসামিকে ছেড়ে দিতে হবে। তখন পুলিশ তাকে সাফ জানিয়ে দেয়, টাকা আদায়ের কাজ পুলিশের নয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে অদ্ভুত আচরণ করতে থাকেন তিনি। একপর্যায়ে রাতে ওই তরুণী রাস্তায় শুয়ে নানা অঙ্গভঙ্গি করেন। রাত ১টায় নিজ জিম্মায় ওই যুবককে থানা থেকে ছাড়িয়ে নিয়ে যান তিনি।

এ বিষয়ে জানতে শান্তাকে ফোন করা হলে তিনি বলেন, এ খবর ভিত্তিহীন। যারা এ সংবাদ করেছেন তারা কি আমার রক্ত পরীক্ষা করেছেন? বলে ফোন রেখে দেন। এদিকে চলতি বছরের জুলাই মাসে কলকাতার পরিচালক-প্রযোজক রাজীব কুমার বিশ্বাসের বিরুদ্ধে কাস্টিং কাউচের অভিযোগ করেন বাংলাদেশের মডেল শান্তা পাল। হোটেলে একরাত কাটানোর পরই দেবের বিপরীতে তাকে অভিনয় করার সুযোগ দেয়ার প্রস্তাব দেন বলে অভিযোগ করেন শান্ত।

Previous articleঅর্ধশত ছবির ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত
Next articleপ্রথমবার বিজ্ঞাপনে সজল-আইরিন

Leave a Reply