আশির দশকে টিভি ধারাবাহিকে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে শুরু তার অভিনয় জীবন। ১৯৯২ সালে ‘দিওয়ানা’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্র জগতে প্রবেশ তার। তারপর শতাধিক সিনেমায় অনবদ্য অভিনয় করে নিজেকে নিয়ে গেছেন অন্য উচ্চতায়। হয়েছেন ‘বলিউড বাদশা’ হিন্দি সিনেমার ‘কিং অব রোম্যান্স’। তিনি শাহরুখ খান। ১৯৬৫ সালে আজকের দিনে (২ নভেম্বর) ভারতের নয়াদিল্লিতে এক মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। নানা উন্থান-পতনের মধ্য দিয়ে আজকের এ অবস্থানে এসেছেন শাহরুখ খান। নিজের জন্মদিনে তাই নিয়ম করে দেখা দেন ভক্তদের। শাহরুখের বাড়ি মান্নাতের সামনে জন্মদিনে ভিড় করে অসংখ্য ভক্ত। বাড়ির বারান্দা থেকে হাত নাড়িয়ে ভক্তদের শুভেচ্ছা গ্রহণ করেন এ হিরো। কিন্তু করোনার কারণে এবার তা হচ্ছে না। জন্মদিনে তেমন কোনো আয়োজন থাকছে না বলিউড বাদশার। এমন আভাসই পাওয়া গেছে তার টুইটার সূত্রে।

এই অভিনেতার পারিবারিক জীবনের গল্পও সিনেমার কাহিনীর মতোই। শাহরুখ ও গৌরি একই স্কুলে পড়াশুনা করলেও দুজনের মাঝে খুব বেশি পরিচয়-খাতির ছিল না। পরিচয় হয় এক অনুষ্ঠানে আবার দেখা হবার পর। ধীরে ধীরে গৌরি’র সঙ্গে বন্ধুত্বের সম্পর্ক থেকে ভালোবাসায় পরিণত হয়। পুরো সিনেমার স্টাইলে পারিবারিক প্রতিবন্ধকতা নিয়ে গৌরির সঙ্গে সংসার শুরু করেন। ১৯৯১ সালের ২৫ অক্টোবর হিন্দু রীতি অনুযায়ী শাহরুখের হাতে মেয়েকে তুলে দেন গৌরীর মা-বাবা। শাহরুখ গৌরি দম্পতির প্রথম ছেলে আরিয়ান খান ও মেয়ে সুহানা খান। ২০১২ সালে শাহরুখের তৃতীয় সন্তান আবরামের জন্ম হয়। ক্যারিয়ার জীবনে এখন পর্যন্ত অসংখ্য বার ফিল্ম ফেয়ার অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত হয়েছেন। পেয়েছেন আন্তর্জাতিক সম্মাননাও।

Previous articleসংগীতশিল্পী পারভেজের বিরুদ্ধে আইনি নোটিশ
Next articleনতুন বিজ্ঞাপনে কাকা মাসুদ

Leave a Reply