‘অঙ্গার’, ‘নিয়তি’, ‘মেয়েটি এখন কোথায় যাবে’ সহ বেশ কয়েকটি ছবিতে অভিনয় করে দর্শক মহলে নিজেকে মেলে ধরেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের এ প্রজন্মের চিত্রনায়িকা জলি। মুক্তির অপেক্ষায় আছে বাপ্পী চৌধুরীর বিপরীতে বেলাল সানী পরিচালিত ‘ডেঞ্জার জোন’। সর্বশেষ গত অক্টোবরে এ ছবির জন্য ক্যামেরার সামনে দাঁড়ান তিনি। তারপর হঠাৎ করে নিরুদ্দেশ জলি। এক বছর ধরে চলচ্চিত্র থেকে দূরে আছেন তিনি। চলচ্চিত্রের বিভিন্ন অনুষ্ঠানেও এখন আর দেখা মেলে না তাঁর। কিন্তু কেন? খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বর্তমানে স্বামী সংসার নিয়ে ব্যস্ত আছেন তিনি। তাছাড়া করোনার কারণে দীর্ঘদিন ধরে ঘরবন্দি। পরিবারের কথা ভেবে কোথায়ও বের হচ্ছেন না। এখন জলির ভাবনা জুড়ে শুধুই পরিবার। চলচ্চিত্র নিয়ে আপাতত কিছু ভাবছেন না তিনি। তাছাড়া চার মাস আগে তাঁর একমাত্র ভাই মারা যায়। যার কারণে একটু মানসিক ভাবে ভেঙ্গে পড়েন। দু-হাজার একুশ সালের ফেব্রুয়ারিতে মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে জলি অভিনীত ‘ডেঞ্জার জোন’ ছবিটি। এর দর্শক সাড়ার উপর নির্ভর করছে জলির ফেরা। দর্শক আগ্রহ দেখালে ফের চলচ্চিত্রে দেখা যাবে, না হলে নিজেকে চলচ্চিত্র থেকে পুরোপুরি গুটিয়ে নিবেন তিনি।

জলি জমজমাটকে বলেন, করোনার শুরু থেকেই বাসায় আছি। কোথায়ও বের হচ্ছি না। বাসায় অনেক বাচ্চা আছে। সবার কথা চিন্তা করে বের হচ্ছি না। আড্ডা তো দূরের কথা করোনার কারণে অনেকের সাথে যোগাযোগই নেই। ‘ডেঞ্জার জোন’র উপর নির্ভর করছে জলির ফেরা। দর্শক চাহিদার কথা চিন্তা করেই ফেরার কথা ভাববেন তিনি। তাঁরা না চাইলে ফিরবেন না তিনি। বর্তমানে পরিবার নিয়েই সময় কেটে যাচ্ছে জলির। অনেকেই নতুন ছবির প্রস্তাব দিচ্ছেন। জলি বলেন, অনেকেই চায় আবার কাজে ফিরি। কিন্তু দর্শক রেসপন্স না দেখে ফিরবো না। তাছাড়া বর্তমানে চলচ্চিত্রর অবস্থা আগের মতো নেই। শুরু থেকেই কাজের ব্যাপারে চুজি। ভালো গল্প পেলে কাজ করার ইচ্ছে আছে। চলচ্চিত্র ছাড়া বিজ্ঞাপন, নাটক আমাকে টানে না। চলচ্চিত্রে শেষ কিংবা বিদায় বলতে কিছু নেই। শেষ থেকেই শুরু হয়। সময়ই বলে দিবে জলি আবার চলচ্চিত্রে ফিরবেন নাকি একেবারে বিদায় নিবেন। মুক্তির অপক্ষোয় জলি অভিনীত বন্ধন বিশ্বাস পরিচালিত নিরবের বিপরীতে ‘অফিসার রিটার্ন’ সিনেমাটি।

Previous articleপারিবারিক দ্বন্দ্বে ‘বউ শাশুড়ি’
Next articleসরকারি অনুদানের ‘মুখোশ’ সিনেমায় মোশাররফ করিম

Leave a Reply