বাঙালির অন্যতম সার্বজনীন উৎসব দূর্গাপূজা। একটা সময় পূজো মানে ছিল নতুন জামার গন্ধ। পঞ্জিকার পাতা উল্টে বারবার পূজোর তারিখ দেখা। পূজো মানে স্কুলের ছুটির জন্য অপেক্ষা। আবার কৈশোরের পূজা মানে বদলে যাওয়া। কিন্তু এখন আগমনীও বদলে যাচ্ছে। আবার পুজোর গায়েও বিবর্তনের ছাপ। পুজোর কাউন্টডাউন শুরু হয়ে গিয়েছে। আর মাত্র এক দিনের অপেক্ষা। শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি চলছে প্যান্ডেলে প্যান্ডেল। তবে করোনার কারণে এবার পূজায় থাকছে ভিন্নতা।

গৌতম সাহার কোরিওগ্রাফিতে মঙ্গলবার শারদীয় দূর্গাপূজার ফটোশুটে অংশ নিয়েছেন চিত্রনায়ক নিরব, চিত্রনায়িকা মৌমিতা মৌ ও মডেল ননী। বিশেষ এ শুটের আয়োজন করেন দেশের স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান ভাসাবী। এ প্রসঙ্গে গৌতম সাহা বলেন, ভাসাবীর সাথে অন্যরকম একটা সম্পর্ক। তাদের সাথে অনেক বছর ধরেই কাজ হচ্ছে। খুব মজা করে সবাই কাজ করেছি।

নিরব বলেন, ভাসাবীর অনেক পুরানো মডেল। প্রতিবছর তাদের কাজ করা হয়। খুব মজা করে শুটে অংশ নেই। প্রতিবছর পূজা ঘিরে ফটোশুটের ব্যস্ততা থাকতো তবে এবার করোনার কারণে তা সীমিত। প্রত্যাশা খুব দ্রুত করোনা চলে যাবে পৃথিবী থেকে। আবার স্বাভাবিক জীবন যাপন করবে সবাই।

ধর্মীয় অনুষ্ঠানে ছদ্মাবরনে বিভিন্ন শ্রেণির মানুষকে সংঘবদ্ধ করার একমাত্র উপায় হল শারদীয় দূর্গাপুজা। বছর ঘুরে সার্বজনীন দূর্গাপূজা এলেই বাঙ্গালী হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন মেতে উঠেন এক আনন্দ উৎসবের আমেজে। এই প্রাণবন্ত আমেজ সকলের মানুষের মাঝে শান্তির বার্তা বয়ে আনুক।

Previous articleনতুন চলচ্চিত্রে আদর আজাদ
Next articleঅভিনেত্রী হতে চান অনামিকা জুথি

Leave a Reply