ঢাকাই চলচ্চিত্রের এ প্রজন্মের সমালোচিত চিত্রনায়িকা মিষ্টি জান্নাত। সম্প্রতি উঠতি এ নায়িকা একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে হাজির হয়ে জানান, তার বাংলা ছবি ভালো লাগে না। যার কারণে বাংলা ছবি দেখেন না। নিজের ছাড়া অন্য কেউর ছবিই পছন্দ না। তিনি মনে করেন সে সব ছবির শিল্পীরা তার লেভেলের না। মিষ্টি নিজেকে সর্বোচ্চ লেভেলের দাবি করেন। সব কিছুতে মিষ্টি নিজেকে অনন্যা মনে করেন।

তবে ২০১৯ সালে ‘তুই আমার রানি’ ছবি মুক্তি উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলনে একই মুখে ভিন্ন কথা বলেছেন তিনি। উপস্থিত সাংবাদিক ও চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টদের সামনে বক্তব্য রেখে মিষ্টি জান্নাত বলেন, আমি বাংলা ছবি ভালোবাসি। যার জন্য শত পরিশ্রম করেও বাংলা ছবিতে কাজ করছি। ব্যবসা বা অন্য পেশা বেছে না নিয়ে চলচ্চিত্র ভালোবাসি বলেই এখনও কাজ করে যাচ্ছি। সংবাদ সম্মেলনে দর্শকদের উদ্দেশ্য এ নায়িকা বাংলা ছবি দেখার অনুরোধ করেন।

মিষ্টির ক্যারিয়ারে এখনও বলার মতো ছবি যুক্ত না হলেও তিনি চেষ্টা করে যাচ্ছেন।। সস্প্রতি ‘বীরত্ব’ ছবির আইটেম গানে অংশ নিতে আটজন সহকারী নিয়ে শুটিংয়ে হাজির হয় মিষ্টি জান্নাত। এক দিনের শুটিংয়ের জন্য একজন নায়িকার সঙ্গে আটজন সহকারী গিয়ে সেটে হাজির হওয়ায় বিব্রত হয় সবাই। এই ছবির প্রযোজকের নাম ঠিক না হওয়া পরের ছবিতে অভিনয় করতে হলে ‘বীরত্ব’ ছবির আইটেম গানে পারফর্ম করতে হবে। এমন শর্তে রাজি হয়েছেন উঠতি এ নায়িকা। তবে আট সহকারীকে নিজ খরচে নিয়ে যান তিনি। শুটিং সেটে অপেশাদার আচারণ করায় এ প্রযোজকের নতুন ছবি থেকে বাদ দেওয়ার কথা জানিয়েছেন পরিচালক। এছাড়াও বিভিন্ন সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে রগরগে ছবি প্রকাশ করে নেটিজেনদের সমালোচনার মুখেও পড়তে হয়েছে তাকে।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালে ‘লাভ স্টেশন’ সিনেমার মাধ্যমে আত্মপ্রকাশ করেন মিষ্টি জান্নাত। এরপর দেশের পাশাপাশি কলকাতার সিনেমাতেও কাজ করেছেন তিনি। তার অভিনীত সর্বশেষ সিনেমা ‘তুই আমার রানি’। মিষ্টি জান্নাত অভিনয়ের পাশাপাশি সিনেমাও প্রযোজনা করেছেন।

Previous articleমা হচ্ছেন পিয়া জান্নাতুল
Next articleকরোনায় আক্রান্ত মৌ খান

Leave a Reply