আকর্ষণীয় ডিজাইন এবং সাশ্রয়ী দামের কারণে প্রায় সব শ্রেণি-পেশার মানুষের মধ্যে অল্প সময়ে জায়গা করে নিয়েছে ডিজাইনার’স পোশাক ও সামগ্রী। সারা বছরই  ডিজাইনারদের ইউনিক পোশাকের চাহিদা থাকে ক্রেতাদের কাছে। আর করোনাকালীন সময়ে শোরুম থেকে ঘরে বসে অনলাইনে কেনাকাটার দিকেই ক্রেতারা বেশি ঝুঁকছে। তারই ধারাবাহিকতায় অনলাইন শপ ‘লালিফা’ নিয়ে আসছে ইউনিক ও ফ্যাশনেবল রুচিসম্মত সব পোশাক। ভিন্নধর্মী ও রুচিশীল কুর্তি এবং বাহারি ডিজাইনের শাড়ির কালেকশন রয়েছে লালিফা’র ফেসবুক পেজে।

লালিফা’র কর্ণধার আলিফা জাহান মুনা বলেন, ‘আমার ডিজাইনে সব সময় গুরুত্ব দেয়া হয়। কাস্টমার রিক্রুটমেন্ট এর উপর কাস্টমারের চাওয়া অনুযায়ী ফেব্রিক এবং ডিজাইন ফাইনাল করে থাকি। শুরু থেকেই কাস্টমাইজ কুর্তি আর শাড়ি নিয়ে কাজ করছি। সব ডিজাইনগুলো একান্তই নিজের এবং ইউনিক এই জন্য শুরু থেকেই ভালো সাড়া পাচ্ছি। সব কিছুই নিজের হ্যান্ডেল করছি যেন কোয়ালিটিতে কোন কমতি না থাকে। সেজন্য নিজেই দোকানে গিয়ে ফেব্রিক্স খোজা থেকে শুরু করে সব কিছুই আমাকে করতে হয়।’

তিনি বলেন, ‘আল্লাহর রহমতে আজ পর্যন্ত কোন কাস্টমার এক্সপেক্টেশন থেকে খারাপ কিছু হয়নি। এখন পর্যন্ত সব অকেশনকে কেন্দ্র করে কাস্টমাইজ কুর্তি এবং শাড়ি ছিল আমার পেইজের মুখপাত্র। আসলে সবসময় ইচ্ছা ছিল নিজের উদ্যোগে কিছু একটা করার বিশেষ করে ফ্যাশন ডিজাইনার হওয়ার তীব্র ইচ্ছা ছিল আগে থেকেই নিজের জন্য জামা-কাপড় নিজের ডিজাইন দিয়ে বানাতাম। ট্রেন্ডের সাথে সাথে তাল মিলিয়ে চলছি সামনে মসলিন উপর কাজ করার ইচ্ছা আছে। আশা করি আপনাদের সবার পছন্দ হবে। আমার এবং লালিফার জন্য আপনাদের সবার দোয়া কামনা করছি।’

Previous articleশাওন-সারিকার ‘তোমাকে দিয়ে কিছু হবে না’
Next articleবিরতি কাটিয়ে শুটিংয়ে ফিরলেন সালমান খান

Leave a Reply