গতানুগতিক চাকরির বাইরেও এমন অনেক পেশা আছে যেখানে ভালোভাবে উপার্জন ও সম্মান আদায় করা সম্ভব। এরকমই একটি পেশা হলো ফটোগ্রাফি। এখানে নিজের দক্ষতার পাশাপাশি শৈল্পিক জ্ঞানের সমন্বয়ে যে কেউ গড়তে পারেন উজ্জ্বল ভবিষ্যত। তরুণরা অনেকেই বর্তমানে পড়ালেখা শেষ করে পেশা হিসেবে ফটোগ্রাফি বেঁছে নিচ্ছেন। বর্তমানে এ পেশায় যতেষ্ট চাহিদা রয়েছে।

তেমনি ফটোগ্রাফি জগতের এক পুরনো মুখ মো. আতিকুর রহমান। ২০১৭ সাল থেকে তিনি এই ব্যাস্ত শহরে এক আলোকচিত্রি হিসেবে যোগদান করেন। সোস্যাল মিডিয়াতে পরিচিতি লাভ না করতে পারলেও তার কাজের মান হয়ে উঠেছে আরও উন্নত। ফটোগ্রাফির পাশাপাশি ভিডিওগ্রাফিতেও কাজ করছেন তিনি।

আতিকুর বলেন, ছোটবেলা থেকেই ছবি তোলার উপর নেশা ছিলো। ২০১৭ সাল থেকে প্রফেশনাল ভাবে ফটোগ্রাফি শুরু করি। সবার মত আমি ফেমাস হতে পারিনি হয়ত এটা আমার ব্যার্থতা কিন্তু আমি কাজ করে যাচ্ছি। ভাল কাজের প্রতিদান একদিন পাবো ইনশাল্লাহ।

তিনি বলেন, বর্তমানে ফ্যাশন ফটোগ্রাফিতে তেমন সারা না পেলেও প্রোমোশনাল ভিডিওগ্রাফি এবং প্রডাক্ট ফটোগ্রাফিতে বেশ সারা পাচ্ছি। আপাতত Mission Online নামে একটি অনলাইন প্লাটফর্মের সিনিয়র ফটোগ্রাফার ও ভিডিওগ্রাফার হিসেবে কার্যরত আছি। অচিরেই নিজেই একটি স্টুডিও দেব। আশা করি সামনে আরও ভাল কাজ করতে পারবো।

Previous articleফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি এখন মরা লাশ: মারুফ
Next articleআমার হারমোনিয়াম কেনার টাকা নানা দিয়েছিল: মোমিন

Leave a Reply