সুন্দরী সুরেলা কণ্ঠশিল্পী শিরিন মুন্নী। নিজের ইউটিউব চ্যানেল শিরিন মুন্নী (shirin munni)তে তিনি গানের পাশাপশি স্বকন্ঠে কবিতা আবৃত্তি প্রকাশ করে দারুণভাবে প্রশংসিত হচ্ছেন। চলমান বৈশ্বিক মহামারী করোনাতে পহেলা বৈশাখে রমনার বটমূলে বর্ষবরণ উদযাপন করতে না পারার হাহাকার নিয়ে স্বরচিত একটি কবিতা আবৃত্তি মুন্নী প্রকাশ করেন। ওই সময় তার এমন ব্যতিক্রমী বৈশাখী ডিজিটাল আয়োজন সবার মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলেছিল। ছোট্ট অথচ বৈশাখ নিয়ে বাঙালির এমন আবেগঘন কবিতা আবৃত্তি নিয়ে শিরিন মুন্নী নিজেও তখন আবেগাপ্লুত হয়েছিলেন। এর আগে শিরিন মুন্নী প্রথম আবৃত্তি শিল্পী হিসেবে ইউটিউবে আত্মপ্রকাশ করেন সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের লেখা রোম্যান্টিক কবিতা ভালোবাসা আবৃত্তি করার মধ্য দিয়ে।

এই প্রতিবেদকের কাছে গানের শিল্পী হয়েও কবিতা আবৃত্তি এবং সেই আবৃত্তি ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ করার মতো এমন ব্যতিক্রমী আয়োজন প্রসঙ্গে শিরিন মুন্নী বলেন, একজন শিল্পী হিসেবে আমার সামাজিক দায়বদ্ধতা রয়েছে। সেই দৃষ্টিভঙ্গি থেকেই আমি আমার অবস্থান থেকে মানুষকে সচেতন করার লক্ষ্যে ওই বৈশাখী কবিতা আবৃত্তি করেছি। দর্শক-শ্রোতাদের কাছ থেকে ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া পেয়েছি। তাই তো গানের পাশাপশি এই করোনাকালে আমি নিয়মিত কবিতা আবৃত্তি প্রকাশ করছি।

তার আবৃত্তি করা কবিতাগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- প্রিয়জন, আমার বাবা, আমার মা, বৈশাখ, করোনা লিখে গেছে ইতিহাস, অপেক্ষা, স্বার্থপর, ভালোবাসি, কবিতা আমি ভালোবাসি ইত্যাদি। শিরিন মুন্নীর কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল-কোন কবিতায় তিনি বেশি প্রতিক্রিয়া পাচ্ছেন? তিনি বলেন, জিয়াউল হকের লেখা প্রিয়জন কবিতাটি সবার মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। আমার নিজের কাছেও এই কবিতাটি অসাধারণ লেগেছে। আমার চ্যানেলের সব গান ও কবিতার মাঝে ভিউর দিক থেকেও প্রিয়জন কবিতাটি এখন সবার শীর্ষে। আর এই কবিতাটির আবৃত্তি আমি প্রথম ভিডিও আকারে প্রকাশ করেছি। ভিডিও পরিচালনা করেছেন হুমাইরা তাসনিম।

কথায় কথায় বিনয়ী আর বন্ধুবৎসল এই গ্ল্যামারাস গায়িকা ও আবৃত্তিশিল্পী কবিতা আবৃত্তি করা প্রসঙ্গে বলেন, গান শেখার পাশাপাশি আমি শৈশব থেকেই কবিতা আবৃত্তি করতাম। কারণ, কবিতাপ্রেমী মানুষ। আর আবৃত্তি করা আমার শখ। মূলত কবিতার প্রতি ভালোবাসার কারণেই আমার এখন আবৃত্তি করা। তাছাড়া দর্শক- শ্রোতাদের কাছ থেকেও ভালো সাড়া, উৎসাহ আর অনুরোধ পাচ্ছি বলেই এখন গান আর কবিতা প্যারালালি করছি।

শিরিন মুন্নী জানান, তার অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত গান হলো তার একটা সুখের স্বপ্ন অ্যালবামের এক পলকে গানটি। এটিতে তার সহশিল্পী এস আই টুটুল। আর সর্বশেষ গান হলো তোর হাত ধরাটা ছিলো প্রয়োজন। নিজের চ্যানেলে শিরিন মুন্নীর গাওয়া উল্লেখযোগ্য কিছু গান হলো- বিধি, সাগরের সৈকতে, আকাশের হাতে আছে, আল্লাহ তুমি মহান, প্রিয় নবী, আল্লাহ তুমি দয়াবান, পারি না ভুলে যেতে, তুমি মোর জীবনের ভাবনা, যাবত কই বাত, আমি মন দিয়েছি, এক পলকে, কেনো আশা বেঁধে রাখি ইত্যাদি।

গান ও কবিতা নিয়ে শিরিন মুন্নী বলেন, গান ও কবিতা দুটোই আমি অনেক ভালোবাসি। অনেক যত্ন ও ভালোবাসা দিয়ে প্রতিটা গান ও কবিতা করার চেষ্টা করি। নতুন কোন গান কিংবা কবিতা প্রকাশ করার পর যখন আমার শ্রোতারা বার বার শোনেন এবং ভালোলাগার অনুভুতি জানান, তখন আমার কাছে মনে হয় আমার কষ্টটা সফল হয়েছে। অসম্ভব ভালো লাগে তখন আমার। তখন আরও নতুন করে কাজ করার প্রাণ শক্তি ফিরে পাই। কেননা দর্শক শ্রোতারাই আমার সব কিছু, তাদের ভালো লাগা, ভালোবাসায় গান গাওয়া ও কবিতা আবৃত্তি করে যাচ্ছি। ভবিষ্যতেও গান-কবিতা দুটোই চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

Previous article‘গল্পের মধ্যে গল্প, আর বলতে বারণ’
Next articleনাট্যমঞ্চের নীরবতা ভেঙ্গে চলতি মাসে লাল জমিনের তিন প্রদর্শনী

Leave a Reply