ঢাকাই চলচ্চিত্রে মা চরিত্রের অন্যতম অভিনেত্রী রেহানা জলি। চলচ্চিত্রে মায়ের চরিত্র এলেই প্রথমে তার নামটিই আসে। মায়ের চরিত্রে অপরিহার্য তিনি। এ পর্যন্ত চারশোরও অধিক চলচ্চিত্রে কাজ করেছেন রেহানা জলি। কামাল আহমেদ পরিচালিত ‘মা ও ছেলে’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্রে নায়িকা হিসেবে রেহানা জলির যাত্রা শুরু হয়। প্রথম চলচ্চিত্রে অভিনয় করেই ১৯৮৫ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান। একজন মমতাময়ী মা হিসেবে চলচ্চিত্রাঙ্গনে রয়েছে তার বেশ সুনাম।

অসংখ্য জনপ্রিয় ছবির অভিনেত্রী রেহানা জলি ভালো নেই। করোনার কারণে দীর্ঘদিন ঘরবন্দি তিনি। করোনার এ সময়ে একমাত্র শিল্পী সমিতি ছাড়া চলচ্চিত্রর অন্য কোন সংগঠন খোঁজ নেয়নি তার। আক্ষেপ নিয়ে এ অভিনেত্রী বলেন, করোনার কারণে দীর্ঘদিন ঘরবন্দি। যে চলচ্চিত্রর কারণে আজকে রেহানা জলি হয়েছি সেই চলচ্চিত্রর একমাত্র শিল্পী সমিতি ছাড়া কেউ খোঁজ নেয়নি। করোনার শুরু থেকেই বিভিন্ন সময় মিশা সওদাগর ও জায়েদ খান খোঁজ খবর নিয়েছে এবং উপহার সামগ্রী পাঠিয়েছে।

যোগ করে তিনি বলেন, আমরা কাজ পাগল মানুষ। অভিনয় রক্তে মিশে আছে। অভিনয় ছাড়া থাকতে পারছি না। ঘরবন্দি এ সময়টা অভিনয় খুব মিস করছি। বেশ কিছু সিনেমার কাজ বাকি আছে। কবে শুরু হবে তাও জানি না। এমন সময় চলতেও কষ্ট হচ্ছে। যেহেতু চলচ্চিত্রর সংখ্যা কম এবং অনেক দিন কাজহীন তাই সিদ্ধান্ত নিয়েছি নাটকে নিয়মিত অভিনয় করব। বর্তমানে অনেক গল্প নির্ভর ভালো মানের নাটক-টেলিফিল্ম নির্মিত হচ্ছে। তাই ছোটপর্দায় কাজ করার কথা ভাবছি। এ সময়ে যদি ছোটপর্দার কেউ এগিয়ে আসে তাহলে অনেক উপকৃত হতাম। অভিনয় করতে পারলে শরীল মন দুটিই ভালো থাকতো। মাধ্যম যেটা হোক সেখানে অভিনয়ের সুযোগ থাকলেই হয়।

মঞ্চ ও টেলিভিশন নাটকেও নিজের অবস্থান তৈরি করেন রেহানা জলি। আশির দশকের শুরুতে তিনি বদরুন্নেসা আব্দুল্লাহ পরিচালিত ‘উজান চরের দুলি’ নাটকে ‘দুলি’ চরিত্রে অভিনয় করেন। এ চরিত্রটি বেশ জনপ্রিয়তা পায় তখন। পাশাপাশি তিনি মঞ্চ নাটকেও অভিনয় করেন। তার প্রথম অভিনীত মঞ্চ নাটক বিধায়ক ভট্টাচার্যের নির্দেশনায় ‘তাইতো’।

রেহেনা জলি অভিনীত উল্লেখযোগ্য ছবির মধ্যে রয়েছে- বিরাজ বৌ, প্রতীক্ষা, গোলমাল, প্রায়শ্চিত্ত, নিষ্পাপ, দুই নয়নের আলো, আকাশ ছোঁয়া ভালোবাসা, মনে প্রাণে আছো তুমি, আমার প্রাণের প্রিয়া প্রমুখ। তবে নায়িকা চরিত্রে অভিনয়ের চেয়ে মায়ের চরিত্রে অভিনয় করে বেশি জনপ্রিয় হন তিনি। অভিনয়ের স্বীকৃতি স্বরূপ জাতীয় চলচ্চিত্রসহ একাধিক সম্মাননায় ভূষিত হন রেহানা জলি।

Previous articleজোভান-তিশার ‘তুমি কি আমারই’
Next articleদুর্গা সেজে তোপের মুখে নুসরাত জাহান

Leave a Reply