একটা সময় প্রেমকে সমাজ বড় অপরাধ হিসেবে দেখতো, সময়ের সাথে সাথে মানুষের মনের পরিবর্তন হয়ে পরিবর্তন হয়েছে সমাজেরও। এখন প্রেম ভালোবাসাকে স্বাভাবিক ভাবেই মেনে নেওয়া হয়, তারপরও সমাজ থেকে এখনও বৈষম্য দূর হয়নি। অর্থ বিত্তের মানুষেরা ক্ষমতাশালী হয় আর এই ক্ষমতাশালীরা অনেকাংশেই দাম্ভিক হয়, তারা অর্থহীন মানুষদের উপর হুকুম চালাতে চায়।

সেখানে যদি ধনী গরিবের প্রেম হয়ে যায় তাহলে সেটাকে সহজে ধনীরা মেনে নিতে পারে না। কিন্তু জল থাকলে তো সেখানে কাঁদা হবেই ঠিক, তেমনি বাধা যেখানে যত বেশি প্রেম সেখানে অবিচল। কোনো বাঁধায় সেখানে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারে না। আবার যার শুরু আছে তার শেষও আছে। জন্মের পরই মৃত্যু যেমন নিশ্চিত হয়ে যায় ঠিক তেমনি অর্থ ও ক্ষমতারও পালাবদল হয়।

ক্ষমতাশালীদের এক সময় ক্ষমতার অপব্যবহারের একটা সময় কঠিন পরিনতির মুখোমুখি দাঁড়াতে হয়। জয় হয় প্রেম ভালোবাসার। ঠিক যেমন জলের সাথে কাদায় যেমন মিলন হয়। এমনই গল্প নিয়ে বরিশালের মনোরম লোকেশনে গ্রামীন পটভূমিতে চিত্র ধারণ শেষ হয়েছে টেলিফিল্ম ‘জল কাদায়’।

এস এম রুবেল রানা’র গল্প ভাবনা ও পরিচালনায় নাজিম হামিদ এর রচনায় টেলিফিল্মটি প্রযোজনা করেছেন আতৈচি ভিশন ইন্টার্নেশনাল। এতে অভিনয় করেছেন শিশির আহমেদ, ইমু শিকদার, চাষী আরিফুল ইসলাম, তমাল মাহবুব, নিলা ইসলাম সহ আরো অনেকে।

পরিচালক রুবেল বলেন, আসলে ‘জল কাদায়’ টেলিফিল্মের গল্প যে ভাবে আমি বলতে চেয়েছি সেটির সঠিক রুপ দিতে বরিশালের লোকেশনটিই আমার প্রয়োজন ছিল। গল্পের প্রয়োজনেই বরিশালে চিত্র ধারণ করা। বর্তমানে টেলিফিল্মটির সম্পাদনার কাজ চলছে। আগামী মাসে একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে এটি প্রচারিত হবে।

Previous articleগুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ডিপজল
Next articleযুক্তিহীন উক্তির খপ্পরে ইউটিউব

Leave a Reply