ঢাকাই সিনেমার নীল চোখের অধিকারী খলনায়ক তাসকিন রহমান। যার শুরুটা ছিল ভয়ঙ্কর এক ভিলেন হিসেবে। ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবিটি মুক্তির পর রাতারাতি তারকা খ্যাতি পান তিনি। অভিনয়ের জাদু দিয়ে তিনি মাত করেছিলেন দর্শকদের মন। তাসকিন কাজ করছেন ‘সোলমেট’ নামের একটি ওয়েব সিরিজে। এটি পরিচালনা করছেন তরুণ নির্মাতা বাপ্পি খান। সমসাময়িক প্রসঙ্গে জমজমাটের সঙ্গে কথা বলেন তিনি।

‘সোলমেট’ প্রসঙ্গে-

ওয়েব সিরিজে দেখা যাবে আমি সফল অনেক বড় একজন ব্যবসায়ী। এবং একজন প্রেমিক পুরুষ। এর চেয়ে বেশি কিছু বলতে চাই না। জানতে হলে অপেক্ষা করতে হবে।

ওয়েব সিরিজ মানেই অভিযোগ। কি বলবেন?

বিভিন্ন কারণে বিতর্ক থাকতে পারে এটাই স্বাভাবিক। সাঞ্জু ও বিপাশার সাথে আমার প্রথম কাজ। গল্পটি চমৎকার আশা করি, দর্শকদের ভালো লাগবে।

হাতে থাকা চলচ্চিত্রর কি খবর?

এই মুহূর্তে হাতে পাঁচটি ছবি আছে। অপারেশন সুন্দরবন, ঢাকা ২০৪০, গিরগিটি, ওস্তাদ, ক্যাসিনো। আরও দুটি নতুন ছবির ব্যাপারে কথা চলছে। অক্টোবর থেকে ছবিগুলোর শুটিং শুরু হবে। বর্তমানে বেশ কিছু তরুণ নির্মাতা এসেছে তারা অনেক ভালো কাজ করছে। আমাদের দেশে যে ভালো ভালো শিল্পী আছে তাদেরকে এই মুহূর্তে চ্যালেঞ্জ নিয়েই কাজ করতে হবে।

আগামীর কাজগুলোতেও নেগেটিভ চরিত্রেই দর্শক দেখতে পাবে?

তা দর্শক ও প্রযোজকদের চাহিদাই বলে দেবে। তারা চাইলে আপত্তি নেই। আমি কখনোই নিজেকে নায়ক বা ভিলেন হিসেবে চিন্তা করি না। আমার উদ্দেশ্য অভিনয়। সেটা নায়ক-ভিলেন যেটা হোক না কেন! অনেকের একটি উদ্দেশ্য থাকে। তবে আমার সে রকম উদ্দেশ্য নেই। মানুষের চাহিদার জোঁয়ার আমাকে যে দিকে নিয়ে যাবে আমি সে দিকেই যাব। তবে আমার কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সে বিষয় মোটেও ছাড় দিতে নারাজ; সেটা হচ্ছে অভিনয়ের জায়গা থাকতে হবে। দর্শকরা আমাকে ভিলেন চরিত্রে পছন্দ করেন। আমি মনে করি একজন শিল্পীর যে কোন ধরনের চরিত্র ধারণ করা দরকার। আমি সেটাই চেষ্টা করছি করার।

ছবি নির্বাচনে কোন বিষয়টি গুরুত্ব দিচ্ছেন?

সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছি গল্প। যদি গল্পের সাথে কানেক্ট করতে পারি তাহলে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করি। তা না হলে না করে দেই। যার কারণে একের অধিক ছবি ফিরিয়ে দিতে হয়েছে। অনেকগুলো ছবি করে নিজেকে ব্যস্ত রাখার চেয়ে কম ছবি করে নিজের অভিনয়কে শতভাগ ফুঁটিয়ে তুলতে চাই।

Previous articleবসুন্ধরা সিটিতেই থাকছে স্টার সিনেপ্লেক্স
Next articleক্রাউনকে শুভ কামনা জানালেন কথাসাহিত্যিক মুজতবা আহমেদ মুরশেদ

Leave a Reply