ছোটপর্দার অভিনয়শিল্পী সাদিয়া মেহজাবিন। চারদিন আগে নিজের ফেইসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে ঘোষণা দিলেন তিনি করোনায় আক্রান্ত। ঠিক চারদিনের মাথায় আবার ঘোষণা দিলেন তিনি করোনা মুক্ত, যা কোনো ভাবেই সম্ভব নয়। কারো দেহে করোনা পজিটিভ সনাক্ত হলে তাকে অন্তত ১৪ দিন চিকিৎসাধীন কিংবা কোয়ারেন্টাইনে থাকার পর আবার পরীক্ষায় নেগেটিভ পাওয়ারও কিছুদিন পর নিশ্চিত হওয়া যাবে তিনি করোনা মুক্ত। কিন্তু সাদিয়া এসব মানেননি। বরং নিজে নিজেই করোনা মুক্ত বলে ঘোষণা দিয়ে তিনি আবারও কাজে ফিরে অনেককেই ঝুঁকির মুখে ফেলে দিলেন। এমনিভাবে অনেকেই এটা করে সহকর্মীদের ঝুঁকিতে ফেলছেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ঘেঁটে দেখা গেছে প্রায় প্রতিদিনই কোনো না কোনো অভিনয় শিল্পী কিংবা নির্মাতা করোনা আলামত আছে এমন রোগে আক্রান্ত হওয়ার স্ট্যাটাস দিচ্ছেন। এরপর তারা নিজেদের রক্ত পরীক্ষা না করিয়েই কাজে ফিরছেন। এভাবে করোনা আক্রান্ত না হওয়ার ব্যাপারে নিশ্চিত না হয়ে এদের কাজে ফেরা মানেই সংক্রমণের ঝুঁকি। আবার এমনও দেখা গেছে, অনেকের পরিবারের সদস্য করোনা আক্রান্ত হওয়া সত্ত্বেও এই তথ্য লুকিয়ে কিছু অভিনয় শিল্পী কাজ করছেন।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশে বর্তমানে করোনা মহামারীর প্রকোপ আশানুরূপভাবে কমলেও বিশেষজ্ঞরা দ্বিতীয় ঢেউ বা করোনার ফের ছোবলের আশঙ্কা করছেন। এক্ষেত্রে, নাটক সেক্টরে নিজেদের করোনা লুকিয়ে কিছু শিল্পী ও নির্মাতার কাজ করা খারাপ পরিণতি ডেকে আনতে পারে।

Previous article‘তোর কারণে মরণ আমার’
Next articleআজ এটিএম শামসুজ্জামান ও পপির জন্মদিন

Leave a Reply