নতুন পরিচয়ে ফিরছেন প্রসূন আজাদ। তবে অভিনয়ে নন, ব্যবসায়ী হিসেবে। সম্প্রতি অনলাইনে কাপড়ের দোকান দিয়েছেন তিনি। নাম প্রসূন আজাদ.শপ। যেখানে ছেলে মেয়েদের টিশার্ট, টপস, আন্ডার গার্মেন্টস থেকে শুরু করে প্রায় সব ধরনের পোশাক মিলছে। আর এটি পরিচালনা করছেন প্রসূন নিজেই। ব্যবসা প্রসঙ্গে প্রসূন বলেন, করোনার এ সময়ে ঘরেই থাকতে হচ্ছে তাছাড়া অনলাইন ব্যবসায় পুঁজি কম লাগে তাই নেমে পড়লাম।

অভিনেত্রী প্রসূন আজাদ ২০১২ সালে লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান অর্জন করেন। এ প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহণের পূর্বে গিয়াস উদ্দিন সেলিমের ‘অবগুণ্ঠন’ নাটকে কাজ করার মাধ্যমে অভিনয় জগতে অভিষেক ঘটে। অভিনয়ের পাশাপাশি একাধিক ব্র্যান্ডের বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবেও কাজ করেন তিনি। ছোটপর্দার গন্ডি পেরিয়ে কাজ করেছেন বড় পর্দায়ও।

২০১৪ সালে শফিকুল ইসলাম খানের পরিচালনায় ‘অচেনা হৃদয়’ ছবি দিয়ে বড় পর্দায় ক্যারিয়ার শুরু। এরপর ‘সর্বনাশা ইয়াবা’ ও ‘মুসাফির’ নামের দুটি ছবিতে অভিনয় করে প্রশংসিত হন প্রসূন। এরপর থেকে ব্যক্তিগত কারণে অভিনয়ে অনিয়মিত হয়ে পড়েন এ অভিনেত্রী। মাঝে কিছু সময় মিডিয়া থেকে নিজেকে বিচ্ছিন্ন করে রাখেন।

গত বছর তিনটি চলচ্চিত্রে কাজ করলেও নাটকে সেভাবে দেখা যায়নি। কারণ হিসেবে জানান, ভালো গল্প ও পছন্দ অনুযায়ী চরিত্র পাননি বলে অনিয়মিত ছিলেন। এরইমধ্যে চারটি ছবির কাজ শেষ করেছেন এ অভিনেত্রী। শুটিং শেষে এগুলো এখন মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। ছবি গুলো হলো নুরুল আলম আতিকের পরিচালনায় ‘মানুষের বাগান’, রাশিদ পলাশের ‘পদ্মাপুরান’, জায়েদ রেজওয়ানের ‘মৃত্যুপুরী’ এবং নিশীথ সূর্যের ‘পায়রার চিঠি’।

Leave a Reply