অরূপার বিয়ের সব কিছু ঠিকঠাক। ছেলে কানাডা প্রবাসী। কিন্তু এ বিয়েতে অরুপা একদমই রাজি না। তারপরও বিয়ের দিন এগিয়ে আসতে থাকে। অরূপা আর তার হবু স্বামী একদিন ঘুরতে বের হয় ঢাকার একটু বাইরে। খুব সুন্দর একটা জায়গায় হটাৎ তাদের গাড়ি নষ্ট হয়ে যায়। আর তখন সেখানে এসে উপস্থিত হয় একদল মাস্তান। ওদের দেখে অরূপাকে ফেলে পালিয়ে যায় তার হবু স্বামী। অরূপাকে জিম্মি করে মাস্তানরা। কিন্তু কিছুক্ষণ পর নিজেকে সামলে নিয়ে মাস্তানদের হাত থেকে পালায়। অরুপাকে তারা করতে থাকে মাস্তান দল। জঙ্গলের মধ্যে একটা নির্জন বাড়ি খুঁজে পায় অরুপা। ওই বাড়ির মালিক অর্ক একজন উচ্চ শিক্ষিত মানুষ। অর্ক কে সব কিছু খুলে বলে অরুপা।

অর্ক তাকে নিশ্চিত করে যে সে থাকতে কোনো ক্ষতি হবে না। ওখানে একদিন কেটে যায়। কিন্তু বাড়ি থেকে বের হতে পারে না। বাড়ির চারদিকে পাহারা দিতে দেখা যায় মাস্তানদেরকে। সব থেকে অবাক করার মত বিষয় হলো বাড়িতে কোনো মোবাইল ফোনই নেই। অর্কর ভালো ব্যবহারে খুব মুগ্ধ হয় অরুপা। কেমন যেনো দুর্বলও হয় যায়। কিন্তু হটাৎ করেই লক্ষ্য করে যে মাস্তানদের সাথে অর্কর যোগাযোগ আছে। এরপর শুরু হয় পালানোর পরিকল্পনা। অরুপা কি পারবে অর্কর হাত থেকে পালাতে? জানতে হলে দেখতে হবে নাটকটি। এমনই গল্প নিয়ে অঞ্জন আইচ নির্মাণ করেছেন ‘লাভ ইস এ খেলা’। এতে অভিনয় করেছেন নাদিয়া আফরিন মিম, ইরফান সাজ্জাদ, টুটুল চৌধুরী সহ আরও অনেকে।

নাটকটি প্রসঙ্গে মিম বলেন, ভিন্ন রকম একটি গল্পে কাজ করলাম। গল্পে রয়েছে টানটান উত্তেজনা। দর্শক নাটকটি দেখে বেশ আনন্দ পাবে। নাটকটি প্রযোজনা করেছে মীর ফখরুদ্দীন ছোটন। নির্মাতা সূত্রে জানা গেছে, নাটকটি খুব শীঘ্রই একটি বেসরকারি টিভিতে প্রচার হবে।

Previous articleঅভিনেতা হতে এসে নির্মাতা হওয়ার গল্প বললেন সুমন
Next articleনতুন চলচ্চিত্রে সাঞ্জু জন

Leave a Reply