জমজমাট প্রতিবেদক: রাজধানীর মিরপুরের বোটানিক্যাল গার্ডেন। যেখানকার বাতাসে এখন সোঁদা মাটির গন্ধ। সবুজের বিশালতায় ঢাকা পড়ে বিষন্নতা, জল তরঙ্গে ডুব দেয় লাল-নীল অসুখ। দায়িত্বপ্রাপ্তরা বলছেন, দীর্ঘদিন বন্ধ আর লোকশূন্য থাকায় প্রকৃতির এই বাঁধভাঙা উল্লাস। বোটানিক্যাল গার্ডেনের প্রকৃতি নিয়ে জমজমাটের বিশেষ প্রতিবেদন।

ব্যস্ত শহর, ঠাঁস বুনটের ভিড় ঠেলে সবুজের আশ্রয় খুঁজে মানুষ। সে আশ্রয় কখনো অধরা, কখনো মুঠোবন্দি। রাজধানীর তেমনই এক সবুজ আশ্রয়ের নাম বোটানিক্যাল গার্ডেন। মূল ফটক পার করলেই, পিচপথে ছুটে চলা গাছ-পাতার ফাঁক দিয়ে বাতাসে ভাসে সোঁদা মাটির গন্ধ। আর লেকপুল, নানা রকম ক্যকটাস, গোলাপ মাঠ অনুভব করায় আপাত স্বর্গরাজ্যের।

পরিচালক বলছেন, দীর্ঘদিন বন্ধ আর লোকশূন্য থাকায় প্রকৃতির এই বাঁধভাঙা উল্লাস। বিচিত্র মানদার, পাইগাছ, রক্ত কম্বল, বিচিত্র বকুল, পানকিয়া, রঙ্গনের সাথে আলাপনে বিদায় নেয় বিষন্নতা। জল তরঙ্গে ডুব দেয় লাল-নীল অসুখ। এরপর ভ্যাঁপসা গরম আর আলোভাঙা রোদ সরিয়ে ঝুম বৃষ্টিতে মাতে রঙিন প্রজাপতি। সবুজে মোড়ানো এই উদ্যানটি কেবলমাত্র উপভোগের কেন্দ্রই নয়, পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার কাজেও সমান গুরুত্বপূর্ণ। প্রকৃতির এমন অপার সৌন্দর্য বজায় রাখতে এবং রাষ্ট্রীয় সম্পদ টিকিয়ে রাখতে কেবল সরকার কিংবা কর্তৃপক্ষ নয় নিজ নিজ দায়িস্ব পালন করতে হবে সকলকেই, এমনটাই বলছেন সংশ্লিষ্টরা।

Leave a Reply