জমজমাট প্রতিবেদক : আজ রাত ৮: ২০ মিনিটে এটিএন বাংলায় প্রচার হবে এজাজ মুন্নার গল্পে অভিনেতা আনিসুর রহমান মিলন পরিচালিত (আংশিক লকডাউনের গল্প) নাটক ‘মুনিরা মঞ্জিল’। এতে অভিনয় করেছেন জাকিয়া বারী মম, মুনিরা মিঠু, লুৎফর রহমান জর্জ প্রমূখ। নাটকটি পরিচালনার পাশাপাশি অভিনয়ও করেছেন মিলন নিজেই।

নাটকের গল্পে দেখা যাবে, সব সময় আনন্দে মেতে থাকে মাহির ও মালিহা। দুজনেরই অদ্ভুত কিছু কাজ কারবার আর উপস্থিত বুদ্ধি অনেক বিপর্যয় থেকে বাঁচিয়ে দেয়। লক ডাউনের কবলে মাহির ও তার বােন মালিহা। যখন বাসা ভাড়া দিতে পারছে না তখন তারা উপায় বের করে কি করে বাড়ি ওয়ালার হাত থেকে আপাতত বেচেঁ থাকতে পারবে। বাড়িওয়ালা সত্তরাের্ধ্ব নাজিম হিকমত। এটি তার স্ত্রী (মুনিরা হিকমত) এর বাসা। স্ত্রী প্রয়াত। ছেলে এবং ছেলের বউ দুর্ঘটনায় মারা গেলে একমাত্র নাতনীকে নিজের কাছে রেখে বড় করেছেন। সেই দুর্ঘটনায় নাতনী একটি চোখ হারায়। তারপর থেকে সব সময় নাতনী বাসায় সানগ্লাস পরে থাকে। এটা নিয়ে মাহিরের কৌতুহল। একটা মানুষ ঘরের ভিতর কেন সানগ্লাস পরে থাকে। নাতনীকে মাহির পছন্দ করে। কিন্তু সাহস করে কোনদিন কিছু বলতে পারেনি। নাতনী মাহিরকে পছন্দ করে কিনা তা কোন ভাবেই বােঝা যায় না। কারণ নাতনীর অভিব্যক্তি সব সময় নিউট্রাল থাকে। নাজিম হিকমত ব্যাপারটা কিছুটা হলেও বােঝেন কিন্তু তিনি বাধ সাধেননি কোনদিন। বরং নাতনীকে মাঝে মধ্যেই মাহিরের কাছে পাঠান ভাড়ার টাকা আনতে। কড়া অনুশাসনে চলা এই মানুষটির সাথে মাহিরের দ্বন্ধ লেগেই থাকে কারন তার ভাড়া দিতে প্রায়শই দেরি হয়। যাও দেয় তাও ভেঙ্গে ভেঙ্গে। এ নিয়ে বাড়িওয়ালার সাথে তার নানা রকম রং তামাশা হয়ে থাকে। অনেকটা টম এন্ড জেরির মতাে। এ ভাবেই নাটকের গল্প এগিয়ে যাবে। তারপর কি হয়েছে জানতে হলে দেখতে হবে নাটকটি।

 

Previous articleরক্তাক্ত এফডিসি, করোনা’র ঈদ এবং কিছু প্রশ্ন
Next articleধ্বংসের মুখে সিনেমা শিল্প!

Leave a Reply