দরজায় কড়া নাড়ছে কোরবানির ঈদ। যদিও করোনার কারণে ছোটপর্দার হিসেব-নিকেষ পাল্টে গেছে। প্রতিবছর এই উৎসবকে কেন্দ্র করে লাগামহীনভাবে বিভিন্ন নাটকের শুটিং হয় কিন্তু এবারের চিত্র ভিন্ন। আমাদের দেশে অনেক গুলো চ্যানেল। ঈদ উৎসবকে আরও রঙিন করে তুলতে চ্যানেলগুলো আয়োজন করে থাকে নাটক-টেলিফিল্ম ও বিশেষ অনুষ্টানমালার। বিশেষ এ আয়োজনে থাকে জনপ্রিয় শিল্পীরা। এ আয়োজনে ভিন্ন ভিন্ন গল্প ও একাধিক চরিত্রে অভিনয়ের জন্য তারকারা দাঁড়িয়ে থাকেন ক্যামেরার সামনে। উদ্দেশ্য একটাই, অভিনয়ের মাধ্যমে দর্শকদের ভালোবাসা অর্জন। তেমনি কিছু ঈদের নাটক নিয়ে জমজমাট পাঠকদের জন্য এ আয়োজন।

‘রহস্যময়ী’: অভিনেতা ওবিদ রেহান। অভিনয়ের পাশাপাশি দীর্ঘ দিন ধরে নাটক নির্মাণ করছেন। সম্প্রতি ঈদের জন্য ‘রহস্যময়ী’ নামের একটি একক নাটক নির্মাণ করেছেন। আহমেদ শাহবুদ্দিন এর রচনায় নাটকটিতে অভিনয় করেছেন আনিসুর রহমান মিলন, পড়শী রুমি, তারেক স্বপন সহ আরও অনেকে। পরিচালনার পাশাপাশি নাটকটিতে একটি চরিত্রে অভিনয়ও করেছেন ওবিদ রেহান। মধুমিতা চলচ্চিত্রর ব্যানারে নির্মিত নাটকটি প্রযোজনা করেছেন মাসুম পাটওয়ারী। ঈদ অনুষ্ঠানমালায় নাটকটি একটি বেসরকারি টিভিতে প্রচার হবে।

‘শূন্য ঠিকানায়’: শোবিজের প্রিয়মুখ আনিসুর রহমান মিলন, অপর্ণা ঘোষ ও শ্যামল মওলা। সম্প্রতি জুটি হয়ে ‘শূন্য ঠিকানায়’ শিরোনামের একটি একক নাটকে অভিনয় করেছেন। সরকার মিডিয়া নিবেদিত নাটকটি রচনা ও পরিচালনা করেছেন লিটু করিম। এতে আরও অভিনয় করেছেন শিখা মৌ, আলভিকা সহ আরো অনেকে। ঈদে নাটকটি প্রচার হবার কথা রয়েছে।

‘ঘুন মিয়ার মেঘ’: ঘুন খুব সাধারণ ঘরের অসহায় একটি ছেলে। পৃথিবীতে আপন বলতে শুধু তার মা। মা প্যারালাইজড। মায়ের মুখে খাবার তুলে দিতে সে স-মিলে কাজ করে। ঘুন স-মিলে কাজ করলেও তার গাছের প্রতি খুব মায়া। একই গ্রামে বসবাস করে জাবেদা নামের একটি মেয়ে। মা মরা মেয়েকে নিয়ে বাবার চিন্তার শেষ নেই। ঘুন এবং জাবেদা খুব ছোটো সময় থেকেই একজন আরেক জনকে পছন্দ করে। ঘুন কিংবা জাবেদা কেউ কাউকে বলে নাই তাদের ভালোবাসার কথা। এভাবেই এগিয়েছে ‘ঘুন মিয়ার মেঘ’ নাটকের কাহিনি। দয়াল সাহার রচনায় টেলিছবিটি পরিচালনা করেছেন সুব্রত সঞ্জীব। অভিনয়ে শতাব্দী ওয়াদুদ, মৌসুমী হামিদ, খায়রুল আলম, পাপিয়া জেসমিন, মিন্টু কর, আসাদ ডিউক, মনির জামান, সাঈদ, সুকান্ত অপি, শাহজাদা কবির শুভ প্রমুখ। ঈদের ষষ্ঠ দিন রাত ৭টা ৩০ মিনিটে শুধু মাছরাঙা টেলিভিশনে দেখা যাবে এটি।

‘জলে কুমিড় ডাঙ্গায় বাঘ’: নির্মাতা রাশেদ বিপ্লব গল্পকার ফেরারী ফরহাদ এর গল্পে চ্যানেল আইয়ের ঈদুল আজহার বিশেষ অনুষ্ঠান মালার জন্য নির্মাণ করেছেন বিশেষ টেলিমুভি ‘জলে কুমিড় ডাঙ্গায় বাঘ’। এতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন জাহিদ হাসান, ফারুক আহমেদ, স্বাধীন খশরু, সোহেল খান, ম ম মোরর্শেদ, আরমান পারভেজ মুরাদ, মুনিরা মিঠু, ঈশানা, পুতুল, লাবণী, নিশি খান সহ একঝাঁক তারকা শিল্পী। ঈদের দিন দুপুর ২:৩০ মিনিটে চানেল আইতে টেলিমুভিটি প্রচারিত হবে বলে জানান নির্মাতা রাশেদ বিপ্লব।

‘ভারপ্রাপ্ত স্বামী’: দেশের এই সংকট সময়েও থেমে নেই মডেল ও অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা জামান। করোনা মহামারিতে ঘরে বসে না থেকে একের পর এক নতুন নতুন কাজ করছেন। সম্প্রতি শেষ করেছেন আকাশ রঞ্জনের রচনা ও পরিচালনায় ঈদুল আযহার জন্য নির্মিত হলো নাটক ‘ভারপ্রাপ্ত স্বামী’। নাটকটিতে অভিনয় করেছেন প্রিয়াঙ্কা জামান, সাব্বির আহমেদ ও আরফান আহমেদ। নাটকটি নাগরিক টেলিভিশনে ঈদের দিন প্রচারিত হবে বলে জানিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা জামান।

‘স্মার্ট ব্রো’: সম্প্রতি পুবাইলে হারুনের বাড়িতে দৃশ্য ধারণ হয়েছে একক নাটক ‘স্মার্ট ব্রো’। নাটকটি রচনা ও পরিচালনা করেছেন আকাশ রঞ্জন। এতে অভিনয় করেছেন মম মোর্শেদ, ত্রিনা, অবাক, তাশফা ও রতন।
নাটকের গল্পে দেখা যাবে, বিলকিসের সাথে আশফাকের বিয়ে ঠিক হয়েছে। তবে বিয়ে নিয়ে বিলকিস চিন্তিত কারণ, আশফাক মানুষ হিসেবে কেমন ভালো কি-না। তখন বিলকিসের বোন তামান্না আশফাকের চরিত্র পরীক্ষার দায়িত্ব নেয়। গল্পে মোড় নেয়। ঘটতে থাকে নানা নাটকীয় ঘটনা। সেই ঘটনার রহস্য জানতে হলে দেখতে হবে নাটকটি। ঈদে কাব্য মাল্টি মিডিয়া ইউটিউব চ্যানেলে নাটকটি অবমুক্ত করা হবে।

‘বউ বাড়ী’ ও ‘জামাই সাহেব’: চলচ্চিত্রের এক সময়ের দর্শকপ্রিয় ও ব্যস্ত নায়িকা নাহিদা আশরাফ আন্না। বর্তমানে অভিনয় থেকে দূরে আছেন। কিন্তু অভিনয় থেকে সরে দাঁড়ালেও পর্দার আড়াল থেকে তিনি কাজ করে যাচ্ছেন নিয়মিত। স্বামী সাগর সিদ্দিকীর সহযোগিতায় ও শ্বশুর সাদেক সিদ্দিকীর অনুপ্রেরনায় কোরবানী ঈদে আন্না নিয়ে আসছে তার নিজের প্রযোজনায় দুটি নাটক ‘বউ বাড়ী’ ও ‘জামাই সাহেব’। আন্নার প্রযোজনায় দুটি নাটক-ই পরিচালনা করেছেন সাদেক সিদ্দিকী। মির্জা রাকিবের কাহিনীতে ‘বউ বাড়ী’ নাটকটিতে অভিনয়ে রয়েছেন শহীদুল ইসলাম সেলিম, শাহনূর, সাব্বির, হাসান মাসুদ, মাইশা, হীরা, প্রিয়া, জর্জ প্রমুখ। ফজলুল করীমের কাহিনীতে ‘জামাই সাহেব’ নাটকটিতে অভিনয় করেছেন মীর সাব্বির, শিপন মিত্র, মৌমিতা মৌ, মিস ইউনিভার্স জেরিন প্রমুখ।

‘ছেড়ে যাবো না, কথা দিলাম’: আবিরের বয়স পঞ্চাশের কোঠায়। আবির চোখে দেখে না অন্ধ। এই ভদ্রলোক ছেলে ও ছেলের বৌয়ের সাথে থাকেন। ছেলে ও ছেলের বৌ যথেষ্ট যত্নে রাখেন তাকে। আবির সাহেবের দিন যাপন একটি রুটিনেই সীমাবদ্ধ। দুপুর গড়াতেই তার ছেলের বউ সামিয়া তাকে তার স্ত্রী মায়ার কবরের কাছে রেখে আসেন আবার সন্ধ্যা হবার আগেই তার ছেলে সাকিব অফিস শেষে বাড়ি ফেরার সময় বাবাকে নিয়েই বাড়ি আসে। একদিন ছেলের দেরি দেখে আবির একা একাই বাড়ি ফেরার প্রস্ততি নিলেন তার সাদা ছড়ির সাহায্য নিয়ে। রাস্তা পার হতে গিয়ে তার হাতের মোবাইলটা পরে গিয়ে ভেংগে গেলো। রাস্তার পাশের দোকানে চা খাচ্ছিলো এক যুবক। এগিয়ে গেলো আবির সাহেবকে রাস্তা পার হতে সাহায্য করতে। যুবকটি আবির সাহেবকে বসালো দোকানের বেঞ্চে। যুবকটি জিজ্ঞেস করলো চাচা প্রতিদিন দেখি আপনি ওই কবরের পাশে এসে বসে থাকেন, উনি আপনার কে? জবাবে আবির বলেন ও আমার মায়া, আমার স্ত্রী। পঁচিশ বছর আগে চলে গেছে আমাকে ছেড়ে। এতটা বছর আপনি প্রতিদিন এখানে আসেন? এতো ভালোবাসেন তাকে এখনো? আবির; তাকে কথা দিয়েছিলাম কখনো ছেড়ে যাবো না, তাকে ছেড়ে যেতে পারিনি। এমনই গল্প নিয়ে নিবিড় চৌধুরী নির্মাণ করেছেন একক নাটক ‘ছেড়ে যাবো না, কথা দিলাম’। নাটকটিতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন আনিসুর রহমান মিলন, এলিনা শাম্মী, আহমেদ সাজু, সামান্তা সিমু সহ আরো অনেকে। নাটকটি একটি বেসরকারি টিভিতে প্রচার হবে।

শোবিজের পরিচিত মুখ আনিসুর রহমান মিলন। ঈদের জন্য তিনটি নাটক নির্মাণ করেছেন। এজাজ মুন্না রচিত এটিএন বাংলার জন্য নির্মিত হয়েছে আংশিক লকডাউনের গল্প নিয়ে ‘মুনিরা মঞ্জিল’। এতে অভিনয় করেছেন জাকিয়া বারী মম, আনিসুর রহমান মিলন, জয়রাজ, মুনিরা মিঠু, সামান্তা ও প্রীতি। মাসুম শাহরিয়ার রচিত বৈশাখী টিভির জন্য ‘গালিবার গোপ্পো’। এতে অভিনয় করেছেন শবনাম ফারিয়া, আনিসুর রহমান মিলন, মুনিরা মিঠু, লিটু করিম ও মিথিলা। এছাড়াও জাকির হোসেন উজ্জ্বল রচিত ‘দুই মজনু’আরটিভির জন্য নির্মিত নাটকটিতে দেখা যাবে জাহিদ হাসান, আনিসুর রহমান মিলন ও ঊর্মিলা শ্রাবন্তী করকে।

শামীম জামান ঈদের জন্য প্রায় ১২টি নাটক নির্মাণ করেছেন। তারমধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে সাত পর্বের ‘টাম কাড’। এ নাটকের মাধ্যমে দীর্ঘ দশ বছর পর আবারও ফ্রেম বন্দি হলেন জনপ্রিয় তারকা চঞ্চল চৌধুরী, শামীম জামান, আ খ ম হাসান, শাহনাজ খুশি ও বৃন্দাবন দাস। মাঝে বিগত কয়েক বছর চলছিল তাঁদের অভিমান। সম্প্রতি খুশির ঈদ তাঁদের অভিমান ভেঙে দিল। সর্বশেষ দর্শকপ্রিয় ‘হাড়কিপ্টা’ নাটকে এক সাথে দেখা গিয়েছিল তাঁদের। এ ধারাবাহিকের মাধ্যমে তাঁদের অভিমান ভাঙালো। বৃন্দাবন দাসের লেখা ‘টাম কাড’ নাটকটি ঈদে এনটিভিতে প্রচার করা হবে।

দেশের এই সংকট সময়েও থেমে নেই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্ট। ঈদের জন্য নির্মাণ করেছেন বেশ কিছু নাটক। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- বৈশাখী টিভিতে আদিবাসী মিজান’র পরিচালনায় ‘বৃটিশ বুদ্ধি’, দীপ্ত টিভিতে ‘ভেরিফিকেশন’, ‘তিন দৈত্য’, ‘আছোড়’, ‘নো চিন্তা ডু ফুর্তি’, আরটিভিতে ‘ফরমাইশ ম্যান’, ‘কদম আলীর পাহারাদার’, বাংলাভিশনে সাত পর্বের বিশেষ ধারাবাহিক ‘চড়া তালুকদার’ও এনটিভিতে ‘মেষরাশি’। চ্যানেল আইতে হিমু আকরামের ‘বেদানা বিবির বিন্নি’, দীপ্ত টিভিতে গোলাম সোহরাব দোদুলের সাত পর্বের ধারাবাহিক ‘বনে-ভোজন’, শোয়েব চৌধুরীর গল্পে আবু হায়াত মাহমুদের ঈদ ফিকশন ‘হ্যাকড্ লাভস্টোরি’, সজীব মাহমুদের ‘কাচ্চি মুন্না’, নাজমুল রনির ‘লেইস ফিতা লেইস’, আজাদ কালামের ‘ছায়া কাব্য’, ‘মঈশাল-২’, আরটিভিতে ‘খোকা বাবু’। নাটকগুলোতে অভিনয় করেছেন সালাউদ্দিন লাভলু, জাহিদ হাসান, বড়দা মিঠু, ফারুক আহমেদ, আনিসুর রহমান মিলন, রওনক হাসান, তারিন জাহান, নাদিয়া আহমেদ, জামিল হোসাইন, নাদিয়া আফরিন মিম, ঊর্মিলা শ্রাবন্তী কর, নাবিলা ইসলাম, নিলা ইসলাম, আরফান আহমেদ, সাজু খাদেম, মারজুক রাসেল, টয়া, মুনিরা মিঠু, তারেক স্বপন, সোহেল খান, মোনালিসা দীপা, ইকবাল হোসেন, চাষী আলম, রাজু আহসান, শ্যামল মাওলা, তানিয়া বৃষ্টি, মিশু সাব্বির, সূচনা শিকদার, তারিন, শাহেদ আলী, জান্নাতুল প্রিয়া, শামীমা নাজনীন, মিলন ভট্টাচার্য, শরীফুল ইসলাম, ফারজানা রিক্তা, রিমু রোজা খন্দকার, এমিলা হক, হিমি হাফিজ, জাহিদ আকন্দ প্রমূখ।

Previous articleশিল্পীরা পাচ্ছেন নগদ অর্থসহ ঈদ উপহার
Next articleবছরে ৩৬ টি নাটক নির্মাণ করবো: মামুন

Leave a Reply