জমজমাট প্রতিবেদক: ঢাকার অদূরে গাজীপুর পূবাইলের বিলবিলায় শুটিং শেষ আসন্ন ঈদের সাত পর্বের বিশেষ ধারাবাহিক নাটক ‘ডলার’। নাটকটি রচনা করেছেন বরজাহান হোসেন এবং পরিচালনায় আছেন সোহেল তালুকদার। ‘ডলার’ নাটকটির কেন্দ্রিয় চরিত্র বিদেশ ফেরত যুবক মোমিন। কাউকে কিছু না জানিয়ে প্রায় চার বছর পর হঠাৎ করে একদিন ইটালি থেকে দেশে ফেরে মোমিন এবং জানায় এতোদিন পর বিদেশ থেকে সে কোন টাকা পয়সা আনেনি তবে প্রচুর ডলার এনেছে। কথাটা এক কান দু’কান করে সারা এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। মুহূর্তের মধ্যে সবার কাছে মোমিনের কদর বেড়ে যায়। চার বছর আগেও যারা মোমিনকে তুচ্ছ তাচ্ছিল্য করতো তারাই এখন মোমিনের পেছন পেছন ছুটে। মোমিনের বন্ধু-বান্ধব, প্রেমিকা, ঘটক, এলাকার পাতি নেতা থেকে শুরু করে বিল্ডিং এর কন্ডাকটর সহ সকলের আকর্ষণ এখন মোমিন। পিছিয়ে নেই এলাকার চোরেরাও তারাও ডলার বাগিয়ে নিতে নানা রকম ফন্দি করে। শেষ পর্যন্ত কে মনিনের ডলারে ভাগ বসাতে পারে তা নিয়ে শুরু হয় তুমুল প্রতিযোগিতা। এমনই টান টান উত্তেজনার মধ্য দিয়ে এগিয়ে চলে নাটকের কাহিনী।

নাটকটিতে অভিনয় করছেন মীর সাব্বির, মৌসুমী হামিদ, ফারজানা রিক্তা, মাহমুদুল ইসলাম মিঠু, শফিক খান দিলু, চমক তারা, ওবিদ রেহান, তারিক স্বপন, আল সামাদ রুবেল, বিনয় ভদ্র, নূর ই আলম নয়ন, আমিন আজাদ, নীলা ইসলাম, প্রবীর দত্ত, হীরা খান, কেয়া চক্রবর্তী, সাদিয়া, দীপিকা চৌধুরী প্রমুখ। ধারাবাহিকটির নির্বাহী প্রযোজক লিপি আক্তার নিশু এবং প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান নব্য সকাল ক্রিয়েটিভ মিডিয়া।

পরিচালক সোহেল তালুকদার জানান, একুশে টেলিভিশনে ঈদের দিন রাত ৯.২০ থেকে টানা সাতদিন প্রচারিত হবে নাটকটি। গত ঈদেও এই চ্যানেলে ‘ফাইস্যা গেছে বাপ ব্যাটা’ নামে সাত পর্বের ধারাবাহিক প্রচারিত হয়েছে। যা দর্শকপ্রিয়তা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।

পরিচালক সোহেল তালুকদার আরো জানান, নাটক পরিচালনা নিয়ে খুবই ব্যস্ত সময় পার করছেন তিনি। গত ৭ জুলাই থেকে একুশে টেলিভিশনে প্রচারিত হচ্ছে তার পরিচালিত মেগা ধারাবাহিক নাটক ‘ভ্যাজাইল্লা গ্রাম’। ধারাবাহিকটি রচনা করেছেন এন ডি আকাশ। একুশে টেলিভিশনে ৭ জুলাই থেকে প্রতি সপ্তাহে মঙ্গল, বুধ এবং বৃহস্পতিবার রাত ৮.৩০ এ নিয়মিত প্রচারিত হছে এই মেগা ধারাবাহিকটি। প্রচার শুরু হওয়ার পরপরই প্রশংসা পায় ধারাবাহিকটি।

Previous articleমাছরাঙ্গা টেলিভিশনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ‘নেমক’
Next articleঅনিশ্চিত ভবিষ্যতে ঢাকাই চলচ্চিত্র!

Leave a Reply